× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

সিগারেট বাকি না দেয়ায়...

বাংলারজমিন

শরীয়তপুর প্রতিনিধি
২৩ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় নাগেরপাড়া এলাকায় সিগারেট বাকি না দেয়ায় দোকানদারসহ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। এতে তিনজন আহত হয়েছেন। আহতদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল সকালে গোসাইরহাট থানায় একটি অভিযোগ করা  হয়েছে। এর আগে গত বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের নাগেরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- ওই গ্রামের মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আতিকুর রহমান চৌধুরীর ছেলে রাকিব চৌধুরী (১৮), ইমন চৌধুরী (১৬) ও স্ত্রী কানন বেগম (৪০)। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাগেরপাড়া ইউনিয়নের নাগেরপাড়া গ্রামে মদি দোকানদার রাকিব চৌধুরী। গত বুধবার দুপুরে ওই দোকানে বাকিতে সিগারেটে কিনতে যান ওই গ্রামের আবুল হাওলাদারের ছেলে জাকির হোসেন হাওলাদার।
রাকিব বাকিতে সিগারেট দেবে না বলে জানান। কিছুক্ষণ পর জাকির হোসেন হাওলাদার (৩০), তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (২৫) ভাই আক্তার হোসেন হাওলাদার (৩৫), চাচা সুলতান হাওলাদার (৫৫), ভাই বারেক মাঝি (৩৬), ভাবি মোহসেনা বেগম (৩০), রুজি বেগম (৩০), শাশুড়ি মমতাজ বেগম (৬০) মিলে রাকিবের দাদা বীরমুক্তিযোদ্ধা হামিদ চৌধুরী ঘর, দোকানপাট ভাঙচুর ও লুটপাট করে। পরে রাকিব, ইমন ও কাননকে বেদম মারধর করে। গোসাইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা সোয়েব আলী বলেন, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর