× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

সরাইলে বাদীপক্ষের ফসল কেটে নিলো আসামিরা

বাংলারজমিন

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি
৩ মে ২০২১, সোমবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে জেল থেকে এসে রাতের অন্ধকারে বাদীপক্ষের জমির আধাকাঁচা ধান কেটে নিয়েছে হত্যা মামলার আসামিরা। গত শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার কাটানিসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। গত শনিবার দুপুরে গ্রামে অভিযান চালিয়ে পুলিশ আলী রহমান (৩০) ও মজিবুর রহমান (৫২) নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছেন। পুলিশ, অভিযোগপত্র ও গ্রামবাসী সূত্র জানায়, আধিপত্য বিস্তার, পূর্ব শত্রুতা, নির্বাচন ও জায়গা জমিকে কেন্দ্র করে কাটানিসার গ্রামের বর্তমান ইউপি সদস্য মিজান মিয়ার সঙ্গে অলি মিয়ার বিরোধ দীর্ঘদিনের। এতে করে ওই গ্রামে দুটি বলয় গড়ে উঠেছে। উভয়পক্ষ প্রায়ই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তাদের মধ্যে বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনাও ঘটেছে।
সংঘর্ষে আহত হয়ে নিহত হয়েছেন আনোয়ারা বেগম (৭০) নামে এক নারী। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে জায়েদা বেগম (২৮) বাদী হয়ে বকুল মিয়াকে প্রধান আসামি করে ৯০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামী গ্রেপ্তারকৃত বকুল মিয়া (৪৮) ও মুজিবুর রহমান সম্প্রতি জামিনে এসেই বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। তাদের নেতৃত্বে আসামিরা নিহত আনোয়ারো বেগমের দেবর বজলুর রহমানের ৫ কানি জমির আধাকাঁচা ইরি ধান গত শুক্রবার গভীর রাতে কেটে নিয়ে গেছে। নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মো. কাজল চৌধুরী বলেন, জমির ধান কাটা হয়েছে এটা সত্য। তাদের সংঘাত সংঘর্ষের কারণে গত বছর গ্রামের লোকজন দুটি ঈদই করতে পারেনি। পরিবারের মহিলা ও শিশুরা অবর্ণনীয় কষ্ট ভোগ করেছে। এরপরও কীভাবে তাদের হাতে লাঠি ওঠে আমার বুঝে আসে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর