× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

সমালোচনার মুখে স্থগিত আইপিএল

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
৪ মে ২০২১, মঙ্গলবার

করোনা মহামারিতে জেরবার ভারত। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। সোমবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে ভারতে ৩ হাজার ৪৪৯ জন মারা গেছেন। এরমধ্যেই আইপিএল চালিয়ে যাওয়ায় সমালোচিত ছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। সোমবার কলকাতা নাইট রাইডার্সের দুই ক্রিকেটার, চেন্নাই সুপার কিংসের দুই কর্মকর্তা এবং দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামের কয়েকজন মাঠ কর্মীর কোভিড-১৯ শনাক্ত হলে আইপিএল বন্ধের আবেদন জোরালো হয়। এরই মধ্যে দিল্লির উচ্চ আদালতে আইপিএল বন্ধের আবেদনও করা হয়। মঙ্গলবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ঋদ্ধিমান সাহা ও দিল্লি ক্যাপিটালসের অমিত মিশ্র করোনায় আক্রান্ত হন। আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই মাঝপথে থেমে গেল আইপিএলের চতুর্দশ আসর।
অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য আইপিএল স্থগিতের কথা জানান বিসিসিআই সহ-সভাপতি রাজীব শুক্লা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, একাধিক ভারতীয় এবং বিদেশি ক্রিকেটার আইপিএল খেলতে রাজি নন। কঠোর আইসোলেশনে রয়েছে আইপিএলের ৬ দলের ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফরা। আগেই আইপিএল ছেড়ে দেশে ফিরেছেন ইংলিশ ক্রিকেটার লিয়াম লিভিংস্টোন এবং তিন অজি তারকা অ্যাডাম জাম্পা, কেন রিচার্ডসন ও অ্যান্ড্রু টাই।

কঠোর জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে আইপিএল চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল বিসিসিআই। বলয় ভেদ করে ঠিকই করোনা সংক্রমণ ঘটিয়েছে আইপিএলে। ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফদের করোনায় আক্রান্তের খবরে স্থগিত হতে থাকে একের পর এক ম্যাচ। সঙ্গে প্রশ্ন ওঠে সুরক্ষা বলয়ের কার্যকারিতা নিয়ে। কঠিন পরিস্থিতি সামাল দিতে না পেরে আইপিএল স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই। এলিমিনেটর, কোয়ালিফায়ার ও ফাইনালসহ আইপিএলে এখনো বাকি অর্ধেক ম্যাচ (৩০টি)।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর