× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৬ জুন ২০২১, বুধবার, ৫ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

অনলাইনে পরীক্ষা নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো, তবে ...

শিক্ষাঙ্গন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) মে ৬, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩:০২ অপরাহ্ন

এখন থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক পরীক্ষাগুলো অনলাইনে নেয়া যাবে। তবে শিক্ষার্থী কিংবা সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল না চাইলে অনলাইনে পরীক্ষা আয়োজন করা যাবে না।

আজ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) ও উপাচার্য পরিষদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে পরীক্ষা আয়োজন করা যাবে। অনলাইনে পরীক্ষা আয়োজনের জন্য একটি নির্দেশিকা তৈরি করা হয়েছে। এই নির্দেশিকার আলোকেই অনলাইনে পরীক্ষা নিতে হবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে।

সভায় উপস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর ড. মূনাজ আহমেদ নূর বলেন, কোন বিশ্ববিদ্যালয় বা শিক্ষার্থী যদি অনলাইনে পরীক্ষা দিতে না চায় সেক্ষেত্রে তাদের চাপিয়ে দেওয়া যাবে না। কোনো ইউনিভার্সিটি যদি মনে করে সে অনলাইন না নিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে অফলাইন পরীক্ষা নেবে সেটিও তারা করতে পারবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
shohid sadik
৬ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:১৪

Online exam is not an exam at all. Take a viva and grades based on the previous semesters. If some one wants then only those students may sit for offline exam and their grades will be accordingly.

আবুল কাসেম
৬ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ২:২৯

ইউজিসি ও উপাচার্যদের বৈঠকের সিদ্ধান্ত হলো 'ধরি মাছ না ছুঁই পানি'র মতো। সেশনজট নিরোধকল্পে একটা কার্যকর পদক্ষেপ ও সিদ্ধান্ত নেওয়া দরকার ছিলো। অথচ আমরা দেখছি সিদ্ধান্তটি কারো কারো ইচ্ছাধীন করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের হতাশা দূর করে শিক্ষা জীবন চলমান রাখার জন্য অনলাইনে পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা উচিত ছিলো। সেশনজটর কবলে পড়ে এখন শিক্ষার্থীদের ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। বলা হয়েছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে কেউ চাইলে অফলাইনেও পরীক্ষা নিতে পারবেন। কেউ কি হলফ করে বলতে পারবেন তা হোক মঞ্জুরী কমিশন অথবা উপাচার্যগণ যে, করোনা পরিস্থিতি অতো দিনের মধ্যে স্বাভাবিক হয়ে যাবে? এটাতো বলা সম্ভব নয়। তাহলে সেই এখতিয়ার রাখা হলো কেনো? সকল বিশ্ববিদ্যালয়কে নির্দেশ দেয়া হোক, অনতিবিলম্বে সকল সেমিস্টারের ফাইনাল পরীক্ষা অনলাইনে গ্রহণ করে শিক্ষার্থীদেরকে সেশনজট থেকে মুক্তি দেয়ার ব্যবস্থা করা হোক।

অন্যান্য খবর