× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২০ জুন ২০২১, রবিবার, ৮ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

ঈশ্বরগঞ্জে পাওনা টাকার দ্বন্দ্বে যুবক খুন

বাংলারজমিন

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
৯ মে ২০২১, রবিবার

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে দোকান বাকির পাওনা টাকার দ্বন্দ্বে দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক খুনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার ১০নং তারুন্দিয়া ইউনিয়নের ভারতী বাজারে ওই ঘটনাটটি ঘটে। জানা যায়, নিহত যুবকের নাম আজিজুল হক (৩৮)। সে স্থানীয় মামুদীপুর পুনাইল গ্রামের মো. আছির উদ্দিনের পুত্র। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ১০ নং তারুন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আঃ হালিম। তিনি জানান, দোকানের পাওনা টাকা নিয়ে তাদের একই গোষ্ঠীর দুইপক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত একজন হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা গেছে।
এছাড়াও দু’পক্ষের আহত হয়েছে আরো ৩/৪ জন। সূত্রমতে, দু’পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে আরো ৫ জন আহত হয়েছেন। তারা হলেন- প্রতিপক্ষের সালাহউদ্দিন মাস্টার (৪৮), বাবলু (৪৫), মাখন (৩০) এবং নিহত আজিজুলের চাচাতো ভাই মহিউদ্দিন আজাদ মানিক (৪৭) ও তার ছেলে কলেজ শিক্ষার্থী মাহবুব (২৩)। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তবে প্রতিপক্ষের সালাহউদ্দিন মাস্টার, বাবলু ও মাখনকে মারাত্মক আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। আহত মহিউদ্দিন আজাদ মানিক জানান, তার ভাতিজা শাহ্‌ আলমের পাঁচ হাজার টাকা দোকান বাকি ছিল প্রতিপক্ষের সোহেলের কাছে। শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে স্থানীয় ভারতী বাজারে পাওনা টাকা চাওয়ায় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের সালাহউদ্দিন মাস্টার ও মাখন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে তার চাচাতো ভাই আজিজুল রক্তাক্ত জখম হয়। এ সময় তিনি সহ তার ছেলে মাহবুব আহত হয়। পরে আজিজুলকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা রেফার্ড করে। সেখানে নেয়ার পথে রাত সাড়ে ৮টার দিকে আজিজুল মারা যায়। ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আঃ কাদির মিয়া জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী জ্যোৎস্না আক্তার বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ মোতায়েন করা আছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর