× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৫ জুন ২০২১, শুক্রবার, ১৩ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

ইতালিতে বসে কাজের মজা নিতে চান?

অনলাইন

সেবন্তী ভট্টাচার্য
(১ মাস আগে) মে ১১, ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:৩২ অপরাহ্ন

মহামারি আবহে এখন অফিসের সংজ্ঞাটাই পরিবর্তন হয়ে গেছে। রান্নাঘর থেকে সমুদ্র সৈকত যেকোনো জায়গায় আপনার অফিস হতে পারে। ইতালির দু’টি শহর আপনার জন্য এরকমই ঝকঝকে নতুন অফিস বুক করার সুযোগ এনে দিচ্ছে। টাসকানির সান্তা ফিয়েরা এবং ল্যাজিওয়ের রিয়েটি শহরে মনোরম পরিবেশে আপনি কাজ করার সুযোগ পাবেন। যারা দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে কাজে নামছেন তাদের অফিস ভাড়ার ৫০ শতাংশ পর্যন্ত দিয়ে দিচ্ছে স্থানীয় প্রশাসন। আপনি শুয়ে শুয়ে কাজ করুন বা মদের গ্লাস হাতে নিয়ে সে বিষয়ে মাথা ব্যথা নেই কর্তৃপক্ষের। আপনাকে শুধু একটু টেক স্যাভি হতে হবে এবং কাজটি স্থায়ী হতে হবে। ধীরে ধীরে মহামারির প্রকোপ কাটিয়ে উঠছে ইউরোপের এই মনোরম দেশটি।
আর কয়েক সপ্তাহ পর হয়তো পর্যটকদের জন্য এই মনোরম দেশের দরজা খুলে দেয়া হবে। আবারো গ্রীষ্মের মনোরম প্রাকৃতিক দৃশ্য উপভোগ করার সুযোগ পাবেন পর্যটকরা। করোনা আবহে দেশের অনেক মানুষই সান্তা ফিয়েরা বা রিয়েটির মতো শহরে আশ্রয় নিয়েছিলেন, কারণ এই শহরগুলো তুলনামূলকভাবে ততটা জনবহুল নয়। এখন স্মার্ট দুনিয়ার যুগে এই দুই শহরের স্থানীয় প্রশাসন তাদের স্মার্ট বুদ্ধি কাজে লাগিয়ে নতুন অফিস গড়ে তোলার জন্য ইন্টারনেট পরিষেবা প্রদান করছে, যাতে মানুষ এখানে আসতে আগ্রহী হন। সান্তা ফিয়োরাতে জনসংখ্যা ২৫০০ এর মতো। তারা টেকনোলজিতে উন্নতি ঘটিয়ে আর্থিক মানোন্নয়নের দিকে মনোনিবেশ করেছে। তাসকানে বাড়ি ভাড়া নিতে ইচ্ছুক টেলি-ওয়ার্কার্সরা ২০০ পাউন্ডে ঘর ভাড়া পাচ্ছেন। আর যারা দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে আসছেন তাদের ক্ষেত্রে আবার ছাড়েরও ব্যবস্থা থাকছে। এছাড়াও নানারকম সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে অতিথিদের। থাকছে প্লাম্বার, বেবি সিটার, ডাক্তার, ইলেক্ট্রিশিয়ান এবং খাবারের বন্দোবস্ত। কর্তৃপক্ষের একটাই বক্তব্য- দূরে এসে বাড়িতে থাকার অনুভব দিতেই অতিথিদের জন্য কোনোরকম খামতি রাখতে চান না তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর