× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

রূপগঞ্জে মাকে পিটিয়ে দাঁত ফেলে দিয়েছে দুই ছেলে

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রূপগঞ্জ থেকে
১১ মে ২০২১, মঙ্গলবার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পারিবারিক কলহের জের ধরে দুই ছেলে মাকে পিটিয়ে দুটি দাঁত ফেলে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় ছেলেদের পারিবারের লোকেরাও মাকে নির্যাতন করে। গত মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার তারাবো পৌরসভার তারাবো উত্তরপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
আহত মা আমেনা বেগমের ছেলে নজরুল ইসলাম বাদল জানান, তাদের পাঁচ ভাইয়ের মাঝে তার মা বাদলের সঙ্গে থাকেন। তিনিই মাকে ভরণপোষণের দায়িত্ব পালন করেন। আমেনা বেগমের বড় ছেলে গুলজার ও সেজো ছেলে জাহিদ মাদকাসক্ত। গুলজার ও জাহিদ প্রায় বাদলের প্রতিষ্টান 'মা কিন্টারগার্টেন স্কুলে' লোকজন নিয়ে গিয়ে মাদকের আড্ডা জমায়। মাদকের সেবনের বিষয়য়াদি নিয়ে পারিবারিকভাবে তাদের বিরোধ চলে আসছিল।
গত মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে ওই কলহের জের ধরে গুলজার, জাহিদ ও তাদের পরিবারের সদস্য শামিমা, ফাহাদ, ফাহিম, ফারুক মিলে মা আমেনা বেগমকে এলোপাথাড়িভাবে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। এসময় তারা আমেনা বেগম মেরে তার দুটি দাঁত ফেলে দেয়। তারা বাদলের বাড়িঘরে হামলা ভাঙচুর চালিয়ে নগদ ১০ হাজার টাকা ও আসবাবপত্র লুট করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ বাদলের। আহত আমেনা বেগমকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতাল চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন বলেন, এঘটনায় এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর