× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

মসজিদে প্রবেশ করে ছুরিকাঘাত

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে
১২ মে ২০২১, বুধবার

নোয়াখালীর সদর উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মসজিদে ঢুকে এক ব্যক্তিকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে জখম করার অভিযোগে এলাকাবাসী একজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আহত মো. আবদুল কাদের রহমান (৪২), নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) সহকারী রেজিস্ট্রার এবং নোয়াখালী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের রশীদ কলোনির রতন মিয়ার ছেলে। গত সোমবার দুপুর ১টা ৩০ মিনিটের দিকে উপজেলার নোয়াখালী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের রশিদ কলোনির মুন্সি দীঘির পাড় জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে সুনির্দিষ্টভাবে এখন পর্যন্ত এ হামলার কোনো কারণ জানা যায়নি। আটককৃত মো. ইউছুফ আলী ওরফে ভাণ্ডারী (৬০)কে তাৎক্ষণিকভাবে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। সে একই এলাকার হাজী বাড়ির মৃত বাদশা মিয়ার ছেলে। ভুুক্তভোগীর ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন জানান, তার বড় ভাই রশিদ কলোনির মুন্সি দীঘির পাড় জামে মসজিদে ইতেকাফে অংশগ্রহণ করে।
তিনি গত ৭ দিন যাবৎ মসজিদে অবস্থান করছেন। গতকাল জোহরের নামাজের সময় তিনি নামাজের লাইনে দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে একই এলাকার মো. ইউছুফ আলী ওরফে ভাণ্ডারী (৬০), তাকে শরীরের বিভন্ন স্থানে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। পরে পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। তিনি আরো জানান, ইউছুফ আলী ভাণ্ডারীর রশিদ কলোনি এলাকায় একটি বড় গরুর খামার ছিল। ওই খামারের কারণে পরিবেশ দূষণ হওয়ায় এলাকাবাসী বিভিন্ন অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ করে তার খামারটি বন্ধ করার জন্য।
ওই অভিযোগ পত্রে আমার ভাই আবদুল কাদের রহমানও একাত্মতা প্রকাশ করে স্বাক্ষর করে। এ ঘটনার জের ধরে সে আমার ভাইকে ছুরিকাঘাত করে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সুধারাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন মানবজমিনকে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর