× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৬ জুন ২০২১, বুধবার, ৫ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

আইপিএল’র বাকি অংশে অনিশ্চিত ইংলিশ ক্রিকেটাররা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
১২ মে ২০২১, বুধবার

করোনার ভয়াবহতায় মাঝপথে আইপিএল স্থগিত করে দিতে বাধ্য হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডÑ বিসিসিআই। তবে তারা এখনো আশা ছাড়ছে না। বিদেশের মাটিতে হলেও আইপিএল আয়োজন করতে চায় তারা। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী এরইমধ্যে জানিয়েছেন, ভারতে আইপিএলের বাকি অংশ আয়োজন সম্ভব নয়। তবে তারা বিদেশের মাটিতে বাকি অংশ আয়োজন করার জন্য উইন্ডো খুঁজছেন। তবে আইপিএলের বাকি অংশে খেলতে পারবেন না ইংলিশ ক্রিকেটাররা। তেমনটাই জানিয়েছেন ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) ডিরেক্টর অব ক্রিকেট অ্যাশলে জাইলস।
আইপিএলের বাকি অংশ আয়োজনের সম্ভাবনা রয়েছে আগামী অক্টোবরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে। এরমধ্যে ইংল্যান্ডের নিজেদেরই অনেক খেলা রয়েছে।
ওই সময় ইংল্যান্ডের বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানে সফর করার কথা রয়েছে। দেশটির ক্রিকেট বোর্ড চায়, তাদের ক্রিকেটাররা দেশের হয়ে ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করুক। অ্যাশলে জাইলস বৃটিশ মিডিয়াকে বলেন, ‘যদি ওই সিরিজগুলো সময়মতো অনুষ্ঠিত হয়, তাহলে আমি আশা করবো ক্রিকেটাররা আইপিএলের চেয়ে জাতীয় দলের হয়েই অংশগ্রহণ করবে। আমরাও তাদেরকে দেশের ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে চাই।’ অ্যাশলে জাইলস আগে একমত হয়েছিলেন যেসব ক্রিকেটার আইপিএলের শেষ অংশে খেলবে, তাদেরকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের জন্য ডেকে আনা হবে না। জুনের ২ তারিখ থেকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শুরু হওয়ার কথা। কিন্তু জাইলসের মুখে এখন শোনা যাচ্ছে ভিন্ন কথা। জাইলস বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের চিত্রটা ছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন। এই ম্যাচগুলো নির্ধারণ করা হয়েছিল জানুয়ারির শেষ দিকে। যে সময় খেলোয়াড়দের সঙ্গে চুক্তি হয়েছিল, তাদেরকে আইপিএলের পুরোটাতে খেলতে দেয়া হবে।’ কিন্তু করোনার কারণে আইপিএল স্থগিত হওয়ার ফলে পরিস্থিতি পাল্টে গেছে। ইংল্যান্ডের জস বাটলার, স্যাম কুরান, ক্রিস ওকস, জনি বেয়ারেস্ট এবং মইন আলি এই মুহূর্তে ১০ দিনের কোয়ারেন্টিন করছেন তাদের দেশের সরকারি নিয়ম মেনে। এরপরই তারা ইংল্যান্ড জাতীয় দলে খেলার জন্য সিলেকশনের উপর্যুক্ত হবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর