× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৬ জুন ২০২১, বুধবার, ৫ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ
একদিনে আরো ৩৩ জনের প্রাণহানি

মৃত্যু ১২০০০ ছাড়ালো

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
১২ মে ২০২১, বুধবার

দেশে করোনায় আরো ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১২ হাজার ৫ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ২৩০ জন। এখন পর্যন্ত শনাক্ত ৭ লাখ ৭৬ হাজার ২৫৭ জন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৪৪ জন এবং এখন পর্যন্ত সুস্থ ৭ লাখ ১৫ হাজার ৩২১ জন। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনার নিয়মিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে আরো জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৪ হাজার ৩২টি। অ্যান্টিজেন টেস্টসহ নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১৪ হাজার ১৮৪টি।
এখন পর্যন্ত ৫৬ লাখ ৬১ হাজার ৯২৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায়  শনাক্তের হার গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৩ দশমিক ৭১ শতাংশ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ১৫ শতাংশ এবং মারা গেছে ১ দশমিক ৫৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ২১ জন পুরুষ এবং নারী ১২ জন। এখন পর্যন্ত পুরুষ ৮ হাজার ৬৯৯ জন এবং নারী মৃত্যুবরণ করেছেন ৩ হাজার ৩০৬ জন। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায় যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ৬০ বছরের  বেশি ১৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৫ জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২ জন মারা গেছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগেই মারা গেছেন ১৯ জন, চট্টগ্রামে ৭ জন, রাজশাহীতে ১ জন, বরিশালে ১ জন, সিলেটে ৩ জন এবং রংপুরে ২ জন  মারা গেছেন। ২৪ ঘণ্টায় সরকারি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ২১ জন, বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ১০ জন এবং বাসায় মারা গেছেন ২ জন।
টিকা বিতরণ ৯৪ লাখ ১৩ হাজার ডোজ: দেশে ২৫তম দিনে টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৯৭ হাজার ৩৩৭ জন। এর মধ্যে ঢাকা মহানগরে নিয়েছেন ২৩ হাজার ৪৫৫ জন। এ পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৩৫ লাখ ৯৩ হাজার ৫২৩ জন। প্রথম ও  দ্বিতীয় মিলে টিকা দেয়া হয়েছে ৯৪ লাখ ১৩ হাজার ৪৩৩ ডোজ। বিতরণ করা টিকা বাদ দিলে হাতে মজুত আছে মাত্র ৭ লাখ ৮৬ হাজার ৫৬৭ ডোজ। ঘাটতি টিকার পরিমাণ  ১৪ লাখ  ৩৯ হাজার ৮২০ ডোজ।  অন্যদিকে সারা দেশে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরুর ৭৪তম দিনে প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১০ জন। যদিও ২৬শে এপ্রিল থেকে প্রথম ডোজ টিকা গণহারে দেয়া বন্ধ রয়েছে। তবে কিছু সেন্টারে প্রভাবশালীদের চাপে প্রথম ডোজ কিছু টিকা বিতরণ চলছে বলে সূত্র বলছে। এ পর্যন্ত দেশে মোট প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৫৮ লাখ ১৯ হাজার ৯১০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩৬ লাখ ৮ হাজার ৯৭৭ জন এবং নারী ২২ লাখ ১০ হাজার ৯৩৩ জন। টিকা নেয়ার পর সামান্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়েছে মোট ১০০০ জনের। অন্যদিকে অনলাইনে নিবন্ধনও ২রা মের পর থেকে বন্ধ রয়েছে। এ পর্যন্ত মোট নিবন্ধন করেছেন ৭২ লাখ ৪৮ হাজার ৮২৯ জন।  প্রসঙ্গত, গত ২৭শে জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে গণ টিকাদান শুরু হয় ৭ই ফেব্রুয়ারি থেকে। আর দ্বিতীয় ডোজ শুরু হয় ৮ই এপ্রিল থেকে। দেশে কেনা এবং উপহার পাওয়া মিলে এ পর্যন্ত টিকা এসেছে এক কোটি দুই লাখ ডোজ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর