× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

হিউজটনের রাস্তায় বাংলার বাঘ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) মে ১২, ২০২১, বুধবার, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

টেক্সাসের রাস্তায় বাংলার বাঘ। এখানে ওখানে, লনে এমনকি রাস্তায় অবাধে বিচরণ করছে এই বাঘ। টেক্সাসের হিউজটনে এমন ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ফলে পুলিশ ওই বাঘের মালিক ২৬ বছর বয়সী ভিক্টর হুগো শাভেজকে গ্রেপ্তার করেছে। তবে তার আইনজীবী বলেছেন, এই বাঘের মালিক শাভেজ নন। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। এতে আরো বলা হয়, মঙ্গলবার টেক্সাসের বিভিন্ন স্থানে ওই বাঘটিকে খুঁজে বেড়ায় পুলিশ। কারণ, লন এবং রাস্তায় অবাধে ঘুরে বেড়ানোর পর দৃশ্যত এর মালিক পশুটিকে নিয়ে পালিয়ে যায় বলে মনে করা হয়।
এর মালিক হিসেবে চিহ্নিত শাভেজ এরই মধ্যে আইনগত সমস্যায় পড়েছেন। হিউজটনে তার বাড়িতে পুলিশ পৌঁছামাত্র বাঘটিকে পাঁজাকোলা করে একটি গাড়িতে উঠিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার কারণে সোমবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে ওই বাঘটি কোথায় আছে তার কোনো চিহ্নও পাওয়া যাচ্ছে না। এক টুইটে পুলিশ বলেছে, বাঘটি কোথায় আছে তা নিয়ে অব্যাহতভাবে তদন্ত চলছে। তবে বিভিন্ন খবর বিষয়ক একাউন্ট থেকে বলা হচ্ছে, বাঘটি শাভেজের ভাড়া করা বাড়িতেই থাকতো। এই নাটকের সূত্রপাত রোববার রাতে। এদিন রাতে বাঘটিকে পশ্চিম হিউজটনে একটি বাসার কাছে লন অতিক্রম করতে দেখা যায় শান্ত মাথায়। তা দেখা হোসে রামোস নামে এক প্রতিবেশী স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল কেপিআরসি’কে বলেছেন, আমি বলতে চাই যা দেখেছি তা বিশ্বাস করতে পারছি না। উল্লেখ্য, বাঘটি দেখার পর তিনি এর একটি ছবি তুলেছিলেন এবং তার ব্লগে পোস্ট করেছিলেন। এর মাধ্যমে প্রতিবেশীদের সাবধান করা হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের চারপাশে বন্ধুপ্রতীম এক সমাজ ব্যবস্থা। এ জন্য আমরা খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। বিভিন্ন স্থানে প্রচুর শিশু খেলা করছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md. Harun al-Rashid
১২ মে ২০২১, বুধবার, ৩:৩৮

রাস্তাটি বাংদেশের রাজকীয় এই বড় বিড়ালটির নামে রাখা হোক!

অন্যান্য খবর