× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২০ জুন ২০২১, রবিবার, ৮ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

মাকে নিয়ে আর ঈদ করা হলো না রিফাতের

অনলাইন

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি
(১ মাস আগে) মে ১২, ২০২১, বুধবার, ৬:৩৫ অপরাহ্ন

ঈদে মাকে নিয়ে ঢাকা থেকে দেশের বাড়ি মাদারীপুরের ফিরছিলেন ছেলে। যাত্রাপথে ফেরিতে পদদলিত হয়ে মারা গেছেন মা। ঈদের আগে মাকে এভাবে চিরদিনের জন্য হারিয়ে নির্বাক হয়ে পড়েছেন ছেলে। নিহত ওই মায়ের নাম নিপা আক্তার (৪৫)। তার বাড়ি মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার বালিতগ্রাম এলাকায়। নিহত নিপা আক্তারের ছেলে রিফাত হোসেন (১৪) মায়ের লাশের পাশে কান্না করতে করতে জানায়, তাঁর মা ফেরিতে থাকার সময় গরমে কিছুটা অসুস্থ হয়ে পরে। তবে ফেরি যখন ঘাটে ভিড়ে তখন লোকজন হুড়হুড়ি করে নামতে শুরু করে।
এ সময় সেও ব্যাগ হাতে নিয়ে ফেরি থেকে নামতে যান। ফেরিতে থেকে পন্টুনে নামার পর মাকে দেখতে না পেয়ে ভিড়ের মধ্যে খুঁজতে থাকেন সে।
লোকজন নেমে গেলে ফেরির ডেকেই মৃত অবস্থায় মাকে পরে থাকতে দেখে। রিফাত হোসেন বলেন, ‘আমার মারে লইয়া গেলো রে আল্লাহ, আমার মা..। আমার মায় কই আল্লাহ। আমার সব কিছু শ্যাষ হইয়া গেলো আল্লাহ।’ বুধবার দুপুরে মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাটে ফেরি শাহ্ পরান ও এনায়েতপুরী থেকে নামতে গিয়ে নারীসহ পাঁজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পাঁচ্চর রয়েল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
১২ মে ২০২১, বুধবার, ৮:২২

এধরনের মৃত্যুর দায়ভার কার।সব কিছুতেই হুজ্জুতি বাবস্থাপনা।সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার লোকজন কি নেই কোথাও। অস্বাভাবিক পন্থায় চাকরি বা পদ পাওয়া লোকদের কাছথেকে হুজ্জুতি বাবস্থাপনা ছাড়া কিই বা আসা করা যায় ।

Kazi
১২ মে ২০২১, বুধবার, ৬:৪২

কেউ ভাল পরামর্শ শুনতে চায় না। ভাল নির্দেশ মানে না। আগামী ঈদে পদ্মা সেতু চালু হল ফেরি আর চড়তে হবে না। এবার বাড়ি না গেলে ঈদ ঢাকায় করলে গাড়ি চড়ে সোজাসুজি বাড়ি যেতে পারত। ফিরে আসার সময় আর ও কতজন পদপিষ্ট হবে কে জানে।

Kazi
১২ মে ২০২১, বুধবার, ৬:৩৭

কেউ ভাল পরামর্শ শুনতে চায় না। ভাল নির্দেশ মানে না।

অন্যান্য খবর