× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ
মোদিকে ১২ বিরোধী দলের চিঠি

বিপর্যয়কর মানব ট্রাজেডি, বিনামূল্যে টিকা দিন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) মে ১২, ২০২১, বুধবার, ৮:৫০ অপরাহ্ন

৯ দফা দাবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে যৌথভাবে চিঠি দিয়েছে ভারতের বড় বড় প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক দল। এমন দলের সংখ্যা ১২টি। ওই চিঠিতে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বিনামূল্যে করোনার টিকা সরবরাহ দেয়ার জন্য। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। এতে বলা হয়, দেশজুড়ে করোনার যে ভয়াবহ দ্বিতীয় ঢেউ চলছে তার বিরুদ্ধে অনতিবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানানো হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারকে। হাসপাতাল উপচে পড়ছে রোগী। অক্সিজেন সঙ্কট। এতে হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে।
এ অবস্থাকে বিপর্যয়কর মানব ট্রাজেডি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে চিঠিতে। এর প্রেক্ষিতে বেশ কিছু সিরিজ পদক্ষেপের সুপারিশ করেছে বিরোধী দলগুলো। এর মধ্যে রয়েছে বিনামূল্যে টিকা বিতরণ, সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের কাজ বন্ধ রাখা এবং এ কৃষি বিষয়ক আইন বাতিল করা। আজ বুধবার এই চিঠি দেয়া হয়। যৌথ ওই চিঠিতে মোদিকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়েছে, অতীতে বার বার আমরা আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। সেটা স্বতন্ত্রভাবে, আবার যৌথভাবেও। আমরা আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি বেশ কিছু পদক্ষেপের বিষয়ে। এসব পদক্ষেপ কেন্দ্রীয় সরকারের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং বাস্তবায়নযোগ্য। দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো, আপনার সরকার আমাদের এসব সুপারিশকে তোয়াক্কাই করেনি অথবা প্রত্যাখ্যান করেছে পুরোটাই। এর ফলে পরিস্থিতি ভয়াবহ মানব বিপর্যয়ে পৌঁছে গেছে। করণীয় সম্পর্কে ওই চিঠিতে বলা হয়েছে- দেশের ভিতর থেকে হোক বা বিশ্বের অন্য কোনো স্থান থেকে হোক সব সূত্র থেকেই টিকা কিনতে হবে কেন্দ্রকে। অবিলম্বে বিনামূল্যে সার্বিক গণটিকাকরণ কর্মসূচি শুরু করতে হবে। আভ্যন্তরীণ টিকা উৎপাদন বৃদ্ধিতে বাধ্যতামূলক লাইসেন্স দিতে হবে। টিকার জন্য বাজেটে ৩৫ হাজার কোটি রুপি বরাদ্দ রাখতে হবে। সেন্ট্রাল ভিস্তা’র নির্মাণকাজ বন্ধ রাখতে হবে। সেখানকার অর্থ ব্যয় করতে হবে অক্সিজেন এবং টিকাখাতে। হিসাব রাখা হয়নি এমন বেসরকারি ট্রাস্ট ফা-ের সব অর্থ মুক্ত করে দিতে হবে। তা দিয়ে টিকা, অক্সিজেন এবং মেডিকেল সরঞ্জাম কিনতে হবে। বেকারদেরকে প্রতি মাসে ৬ হাজার রুপি করে ভাতা দিতে হবে। অভাবী মানুষদের বিনামূল্যে খাদ্যশস্য সরবরাহ দিতে হবে। করোনার শিকারে পরিণত হওয়া কৃষকদের সুরক্ষিত রাখতে কৃষি আইন বাতিল করতে হবে।
রিপোর্টে বলা হয়েছে, এই চিঠিতে মায়াবতীর বহুজন সমাজ পার্টি এবং দিল্লিতে ক্ষমতাসীন অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি বাদে সব গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা স্বাক্ষর করেছেন। চিঠিতে বলা হয়েছে, ভারত ও আমাদের জনগণের স্বার্থে আমাদের এসব সুপারিশ গৃহীত হলে আমরা আপনার প্রশংসা করবো।
এখানে উল্লেখ্য, করোনা সঙ্কট সরকার যেভাবে মোকাবিলা করছে তা নিয়ে সরকারের সমালোচনা করেছেন কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী। মঙ্গলবার তার বক্তব্যের কড়া উত্তর দিয়েছেন বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা। তিনি বলেছেন, লকডাউনের বিরোধিতা করে আপনার নেতৃত্বে থাকা আপনার পার্টি কোনো সাপোর্ট দিচ্ছে না। তারপর একই জিনিস দাবি করছে। অবজ্ঞা করছে দ্বিতীয় ঢেউ করোনা নিয়ে কেন্দ্রের পরামর্শ। তারপর আপনার দল বলছে তারা কোনো তথ্য পায়নি। কেরালায় নির্বাচনে বিশাল সব প্রচারণা সভা করেছে। এ জন্য সেখানে করোনার বিস্তার হয়েছে। এমনকি দ্বিতীয় ঢেউ যখন উঠছে তখন আপনার দলের নেতাদেরকে সন্তুষ্ট দেখা গেছে ভারতের উত্তরে রাজনৈতিক ইভেন্টে সুপার স্প্রেডার হিসেবে। এ সময়ে মুখে কারো মাস্ক ছিল না। মানা হয়নি সামাজিক দূরত্ব। এটা এমন কোনো যুগ নয় যে, এসব তথ্য মানুষের মন থেকে মুছে দেয়া যায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Mahmud
১৫ মে ২০২১, শনিবার, ১১:৫০

সশরীরি মুর্তির পুজা বাদ দিয়ে অশরীরি আল্লাহর প্রতি প্রার্থনা করুন । আল্লাহ নিশ্চই আপনাদের প্রতি সদয় হবেন , আশা করি ।

Kazi
১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:১৮

আজ ১৪ মে আনন্দবাজার পত্রিকায় পড়লাম কেন্দ্রীয় সরকার স্বীকার করেছে দ্বিতীয় ঢেউয়ের সতর্ক বার্তা ছিল। কিন্তু প্রস্তুতি নেয় নি । এতেই বুঝা গেল জন জীবন নিয়ে তাদের কোন দুশ্চিন্তার কারণ নেই বলে তারা মনে করে।

Kazi
১২ মে ২০২১, বুধবার, ১০:১০

Modi মোটেই বিচলিত নয় এই মৃত্যুতে। বিরোধী দল আবেদন করার প্রয়োজন ছিল না। নিজ থেকেই উদ্যোগ নেওয়া দরকার ছিল।

অন্যান্য খবর