× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

হাসপাতালে করোনা রোগী ধর্ষিত, ২৪ ঘন্টার মধ্যে মৃত্যু

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) মে ১৪, ২০২১, শুক্রবার, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন

নরপিশাচের হাত থেকে রেহাই পাননি এক করোনা রোগী। ভারতের ভুপালে একটি সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ৪৩ বছর বয়স্ক এক নারী। সেখানেই একজন পুরুষ নার্স বা সেবক তাকে ধর্ষণ করেছে বলে ওই রোগী অভিযোগ করেছেন একজন চিকিৎসকের কাছে। এর ২৪ ঘন্টার মধ্যে মারা গেছেন ওই রোগী। এ ঘটনা ঘটেছে ভুপাল মেমোরিয়াল হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্স সেন্টারে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। বৃহস্পতিবার পুলিশ বলেছে, এক মাস আগের ঘটনা এটি। তবে সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের পর এই হৃদয়ভাঙা ঘটনা সবেমাত্র প্রকাশিত হয়েছে।
৬ই এপ্রিল ওই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ওই রোগী। তিনি একজন চিকিৎসকের কাছে ধর্ষকের পরিচয় জানিয়ে গেছেন। এরপর তার অবস্থা দ্রুত খারাপের দিকে যেতে থাকে। তাকে নেয়া হয় ভেন্টিলেটরে। একই দিনে সন্ধ্যার পর তিনি মারা যান। নিশাতপুর পুলিশ স্টেশনে এ অভিযোগে মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তির বয়স ৪০ বছর। তার নাম সন্তোষ আহিরওয়ার। তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাঠানো হয়েছে ভুপাল সেন্ট্রাল জেলে। বিচার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা ইরশাদ ওয়ালি বলেন, ওই রোগী মারা যাওয়ার আগে ঘটনা জানিয়ে নিজের পরিচয় গোপন রাখার অনুরোধ করেছেন। এ ঘটনা যাতে কেউ না জানেন সেই অনুরোধ করেন। এ কারণে এতদিন তদন্তকারী টিম ছাড়া অন্য কারো সঙ্গে এই তথ্য শেয়ার করা হয়নি। সূত্র বলেছে, অভিযুক্ত সন্তোষ এর বাইরে ২৪ বছর বয়সী একজন নার্সকেও যৌন হয়রান করেছে। অতীতে মদ্য পানের অভিযোগে তাকে সাময়িক বরখাস্তও করা হয়েছিল। তার হাতে ধর্ষিত হয়ে মারা যাওয়া রোগী ১৯৮৪ সালে ভুপালে গ্যাস ট্রাজেডি থেকে বেঁচে ছিলেন। ওই দুর্ঘটনার পর গঠিত ভিকটিমদের সমিতি ভুপাল মেমোরিয়াল হাসপাতাল রিসার্স সেন্টারের কোভিড ওয়ার্ডের নির্মম অবস্থার কথা জানিয়ে কড়া চিঠি লিখেছে কর্তৃপক্ষের কাছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
akash
১৭ মে ২০২১, সোমবার, ১১:২৬

this possible only in india

shiblik
১৬ মে ২০২১, রবিবার, ৯:২৪

মদ অবৈধ ঘোষণা করা হলে, এ ধরনের বিকৃত - অবৈধ কর্মকাণ্ড অনেক কমে যাবে। করোনা থেকে বাঁচার সম্ভাবনাও বাড়বে।

আককাস
১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৯:৫৬

ওর ফাসি হওয়া উচিৎ এবং ফাসি লাইভ টিভিতে দেখানো যেন এমন কাজ আর কেউ না করে

অন্যান্য খবর