× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

সেতুর মাঝে দাঁড়িয়েই শুভ পরিণয় সম্পন্ন

রকমারি

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৮ মে ২০২১, শুক্রবার

করোনার কারণে বিয়ে বাড়ির ক্ষেত্রেও জারি কড়া বিধিনিষেধ। বেশিরভাগ জায়গাতেই আমন্ত্রিতের সংখ্যাও বেঁধে দেয়া হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। তবে বিয়ের মরশুমে পাত্র-পাত্রীরাও কোভিডবিধি এড়াতে নানা ধরনের পন্থা কিন্তু অবলম্বন করে চলেছেন। যেমন সম্প্রতি এক দম্পতি বিয়ের জন্য আস্ত একটি বিমান ভাড়া করে নিয়েছিলেন। যা নিয়ে বেশ বিতর্কও তৈরি হয়েছিল। আর এবার এক দম্পতি বেছে নিলেন কেরল এবং তামিলনাড়ুর সংযোগকারী একটি ব্রিজকে। কেরল এবং তামিলনাড়ুকে আলাদা করেছে চিন্নার নদী। সেই নদীর উপরেই তৈরি একটি ব্রিজ বর্তমানে বিয়ের জন্য দম্পতিদের অন্যতম পছন্দের জায়গা।
গত বছরও এই ব্রিজেই অন্তত ১১ জন দম্পতি বিয়ে করেছিলেন। আর এবারও বিয়ের মরশুম সামনে আসতেই একই দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। তামিলনাড়ুর দিন্দিগুলের বাতলাগুণ্ডুর বাসিন্দা থাঙ্গামাইলের সঙ্গে কেরলের মারায়ুর ইদুক্কির উন্নিকৃষ্ণনের বিয়ে ঠিক হয়। এদিকে, করোনা রুখতে কেরলে জারি রয়েছে কড়া নিষেধাজ্ঞা। অন্য রাজ্য থেকে সেখানে যেতে গেলে প্রয়োজন করোনার নেগেটিভ রিপোর্ট। সেক্ষেত্রে কনের পরিবারকে দশ জনের করোনা রিপোর্ট করাতেই ২৬ হাজার টাকা খরচ হয়ে যেত। অন্যদিকে, বরেরও সময় এবং অর্থ দুই খরচ হত। শেষপর্যন্ত দুই পরিবার তাই ব্রিজের উপর বিয়ের আয়োজনের ব্যাপারেই মনস্থির করে। যেমন ভাবা তেমন কাজ। বিয়ের দিন প্রশাসনের আধিকারিকদের উপস্থিতিতেই পুরো বিয়েটিই সম্পন্ন হয়। পুরোহিত ছাড়াই ব্রিজের মাঝখানে কনেকে মালা পরান বর। তার আগে অবশ্য দু’জনকেই নিজেদের কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট জমা দিতে হয়। এদিকে, বর-কনের পরিবারের লোকেরা ব্রিজের দুই প্রান্তে দাঁড়িয়েই নবদম্পতিকে আশীর্বাদ করলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর