× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১০ আগস্ট ২০২২, বুধবার , ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

এবার হোয়াটসঅ্যাপই জানাবে কোভিড রিপোর্ট

শরীর ও মন

সেবন্তী ভট্টাচার্য
৩ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার

এখনও অনেক প্রত্যন্ত গ্রামে বা অন্যান্য এলাকায় আরটি-পিসিআর টেস্ট করা সম্ভব হচ্ছে না। করা যাচ্ছে না সিটি স্ক্যানও। সেই কথা মাথায় রেখেই সামনে এল এক নতুন প্রযুক্তি। ব্যাঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স, একটি স্টার্টআপ সংস্থা 'নিরাময়ী' এবং আর্টপ্যাক যৌথভাবে বিশেষ এক প্রযুক্তি শুরু করেছে। যার নাম দেয়া হয়েছে 'এক্স-রে সেতু'। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স-এর দ্বারা পরিচালিত এই পদ্ধতিটি কাজ করে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। জানা গেছে, কোন রেডিওলজিস্ট বা চিকিত্সক যদি এই এক্স-রে-এর ছবি তুলে সেটি হোয়াটসঅ্যাপের নির্দিষ্ট চ্যাটবক্সে আপলোড করেন তাহলে ১৫ মিনিটের মধ্যেই রিপোর্ট আসবে আপনি করোনা আক্রান্ত কিনা। নম্বরটি হল ৮০৪৬১৬৩৮৩৮।
এই নম্বরে পাঠাতে হবে এক্স-রে এর ছবি। শুধু করোনা নয় নিউমোনিয়া বা টিবির মতো যদি কোনো অসুখ থাকে তাও জানাবে 'এক্স-রে সেতু। 'এই মুহূর্তে ৫০০ জন ডাক্তার এই প্রযুক্তি ব্যবহার করছেন। তবে আর্টপ্যাকের তরফ থেকে সংবাদ সংস্থাকে জানানো হয়েছে, খুব তাড়াতাড়ি ১০ হাজার ডাক্তার এই মাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত হবেন।
এক্স-রে ছবিতে গলদ থাকলেও কোভিড টেস্টিং সম্ভব? ডাক্তারেরা বলছেন, হ্যাঁ সম্ভব। কারণ, এই এক্স-রে সেতু আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স প্ল্যাটফর্মে তৈরি করা হয়েছে এবং বিশেষ ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে কোভিড পজিটিভ রোগীদের চিহ্নিত করতেই। এমনকি বুকের এক্স-রে এর লো-রেজুলেশনের ছবি পাঠালেও হোয়াটসঅ্যাপ থেকে তা ডিটেক্ট করা যাবে বলেই জানিয়েছেন ডেভেলপাররা। দেশের যে সব অঞ্চলে কোভিড আক্রান্ত রোগীর পরিমাণ বেশি, সেই সব অঞ্চল খুব সহজেই চিহ্নিত করার জন্য সেমান্টিক অ্যানোনেশন রয়েছে এই X-ray Setu AI প্ল্যাটফর্মে। ইতিমধ্যেই এই 'এক্স-রে সেতু'-র সাহায্যে অন্তত ১ লাখ ২৫ হাজার এক্স-রে ছবি থেকে কোভিড টেস্ট সফল ভাবে করে দেখা হয়েছে বৃটেনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেল্থে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর