× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২০ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ
কলকাতা কথকতা

বিচ্ছেদ চেয়ে নিখিলের দেওয়ানি মামলা, ১০ই সেপ্টেম্বর মা হবেন নুসরাত, গুঞ্জন টলিপাড়ায়

কলকাতা কথকতা

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা
(১ মাস আগে) জুন ৮, ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:৩১ পূর্বাহ্ন

রূপসী, সুন্দরী নুসরাত জাহানকে নিয়ে গুঞ্জন যেন থামছেই না। এমনিতেই খবরের শিরোনামে থাকতে চান এই অভিনেত্রী-সাংসদ। এবার তাঁর মা হওয়ার সংবাদে আরও তোলপাড়। কাহানি মে টুইস্ট দূরে থাকা স্বামী নিখিল জৈন অনাগত সন্তানের পিতৃত্ব অস্বীকার করায়। এরপরই ভেসে ওঠে অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর নাম। যাঁর সঙ্গে নুসরাত ডেটিং করছেন প্রায় সাত আট মাস হয়ে গেল। শুধু ডেটিং নয়, লিভ টুগেদার করছেন নিজের বাল্লিগঞ্জের ফ্ল্যাটে। নুসরাত কিংবা যশ এ ব্যাপারে রহস্যের জাল জড়িয়ে রাখলেও সোমবার একটি গুঞ্জন আবার দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে টলিপাড়ায় যে, নুসরাত নাকি ছমাসের অন্তঃসত্ত্বা এবং তাঁর সন্তান জন্ম নেবে ১০ই সেপ্টেম্বর দক্ষিণ কলকাতার নামী একটি ক্লিনিকে।
মা হওয়ার খবরের মতো এই  খবরটিকে স্বীকার অথবা অস্বীকার কোনোটাই করেননি নুসরাত। অন্যদিকে নুসরাতের স্বামী নিখিল জৈন দেওয়ানি মামলা করেছেন নুসরাতের বিরুদ্ধে বিচ্ছেদ চেয়ে। নিখিল অবশ্য জানিয়েছেন, এই মামলার সঙ্গে নুসরাতের মা হওয়া বা না হওয়ার কোনো সম্পর্ক নেই। যেদিন তিনি জানতে পেরেছিলেন যে নুসরাত তাঁর সঙ্গে না থেকে অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চায়, সেদিনই তিনি মামলার সিদ্ধান্তটি নিয়েছিলেন। দু বছর আগে ১৯শে জুন তুরস্কে বিয়ে করেন তাঁরা। সেই অর্থে দ্বিতীয় বিবাহ বার্ষিকীর আগে বিচ্ছেদের আবেদন। নিখিল জানান, নুসরাতের সঙ্গে তার সম্পর্ক জোড়া লাগার কোনো সম্ভাবনা নেই। দুজনের পথ সম্পূর্ণ আলাদা। জানা গেছে তুরস্কে নিখিল-নুসরাতের বিয়ে হয়েছিল হিন্দু ও খ্রিস্টান মতে। আজ করবো, কাল করবো বলে বিয়ের রেজিস্ট্রেশনটাও করা হয়নি। তাই আদালতে স্রেফ আগমেন্টেশন এর দ্বারা বিচ্ছেদ সম্ভব। নুসরাত শুধু আদালতকে জানাবেন যে নিখিলের সঙ্গে তিনি আর থাকতে চান না। দু বছর আগে তুরস্কে যে স্বপ্নের জন্ম হয়েছিল তার অপমৃত্যু এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর