× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

আওয়ামী লীগ নেতার মেয়েকে নিয়ে পালিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা

বাংলারজমিন

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি
১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার
প্রতীকী ছবি

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক সভাপতির মেয়েকে নিয়ে পালিয়েছেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি। মেয়ের সন্ধান চেয়ে ভুক্তভোগী বাবা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন। অভিযোগ পেয়ে তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করছে পুলিশ।
গত মঙ্গলবার (৮ জুন) দিনগত রাতে তারা পালিয়ে যান এবং বুধবার (৯ জুন) ভুক্তভোগী বাবা মেয়ের সন্ধান চেয়ে বেলপুকুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। এ ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।
অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার নাম দেলোয়ার হোসেন। তিনি বানেশ্বর ইউনিয়নের আবদুস সোবহানের ছেলে এবং বানেশ্বর সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি। তার সঙ্গে পালিয়ে যাওয়া ওই তরুণী বেলপুকুর ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতির মেয়ে এবং বানেশ্বর সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক সভাপতির অনার্স পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যান কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন। এরপর থেকে তাদের কোনো সন্ধান নেই।
এদিকে মেয়ের সন্ধান চেয়ে বুধবার (৯ জুন) বেলপুকুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করে ওই কলেজ ছাত্রীর বাবা। এনিয়ে ওই এলাকায় চাঞ্চল্যে সৃষ্টি হয়েছে।   
এ ব্যপারে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মুঠোফোন নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বেলপুকুর থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, পুলিশ কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Shahab
১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:৪০

Both of adult. No problem. They're talking own disition. Enjoy life. Oil your own machine.

Saiful Islam
১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:২৭

অনেক দিন পড়ে , একটা ভালো কাজ করছে ছাত্রলীগ !

Md. Harun al-Rashid
১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:২৭

দুই সভাপতির একজন অন্য জনের কন্যার পতি হয়ে ভুল কিছু করে নাই। তাদের দাম্পত্য জীবনে সুখ উপচে পড়ুুক।

মোস্তফা সুলতান
৯ জুন ২০২১, বুধবার, ১১:০০

নিজেদের ভিতর ঝগড়া বিবাদ করে লাভ নাই । সুযোগ থাকলে বিয়ে-শাদির ব্যবস্থা করা উচিত।

Khandaker R Zaman
৯ জুন ২০২১, বুধবার, ১০:৫৯

Well done! The student leader should now be promoted to be a party leader and replace his father in law.

nasim
১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৩৯

Kazi Vai darun bolechen!!! ha ha ha

Kazi
৯ জুন ২০২১, বুধবার, ১০:১১

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি পদের চাইতে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি পদের মর্যাদা বেশি । তাই বাবার উচিত স্বানন্দে মেয়েকে অনুষ্ঠানে করে জামাইকে বরণ করা । তা ছাড়া সমগোত্রীয় দল ।

অন্যান্য খবর