× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

বাকপ্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ, সৎ বাবা গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

নরসিংদী প্রতিনিধি
১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বাকপ্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত সৎবাবাকে গ্রেপ্তার করেছে নরসিংদীর র‌্যাব-১১। বুধবার দুপুরে নরসিংদীর র‌্যাব-১১ এর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই তথ্য জানান, নরসিংদী র‌্যাব-১১, সিপিএসসির কোম্পানী কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেনেন্ট মো. তৌহিদ ুল মবিন খান। এরআগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার বরপা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মো. বাদল (৫০) নারায়নগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার সিংহদী গ্রামের মো. সোবানের ছেলে। সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব জানায়, নারায়ণগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ থানাধীন বরপা কেরাম বোর্ডের মোড় এলাকা হতে গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষণ মামলার এজাহার নামীয় একমাত্র আসামী মো. বাদল (৫০) দীর্ঘদিন যাবৎ তার নিজ বসতঘরে বাক প্রতিবন্ধী সৎ মেয়েকে জোর পূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে আসছে। সর্বশেষ গত ১৫ মার্চ রাত ১টার দিকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে ধর্ষিতা ও তার বোনের চিৎকারে ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ পায়। এই ঘটনায় ভিকটিমের মামা বাদী হয়ে ২০শে মার্চ নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানায় নারী ও শিশু দমন আইনে একটি মামলা করেন। ওই ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।
মামলার পর হতে আসামি পলাতক ছিল। দীর্ঘদিন গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‌্যাব-১১, নরসিংদীর একটি চৌকস আভিযানিক দল অভিনব কৌশল ও গোয়েন্দা তৎপরতার মাধ্যমে আসামিকে গ্রেপ্তার করে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর