× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

একটি 'ডাবল ঈগল' স্বর্ণমুদ্রা বিক্রি হলো রেকর্ড ১৮.৯ মিলিয়ন ডলারে

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) জুন ১০, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:৫৮ অপরাহ্ন

১৯৩৩ সালের একটি 'ডাবল ঈগল' স্বর্ণমুদ্রা নিলামে রেকর্ড ১৮.৯ মিলিয়ন ডলার দামে বিক্রি হয়েছে। মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কের সুথিবি'স নিলামে এই স্বর্নমুদ্রাটি তোলা হয়েছিল। এই একই নিলামে ৮.৩ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হয়েছে বিশ্বের সবথেকে বিরল স্ট্যাম্পও। এ খবর দিয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।

খবরে বলা হয়, এই স্বর্ণমুদ্রাটি ছিল ১৯৩৩ সালের একমাত্র ডাবল ঈগল মুদ্রা যেটিকে ব্যক্তিগতভাবে ব্যবহারের অনুমোদন ছিল। ধারণা করা হয়েছিল ১০ থেকে ১৫ মিলিয়ন ডলারে এটি বিক্রি করা যাবে। এটি বিক্রি করেন জুতার নকশাকার স্টুয়ার্ট ওয়েইটজম্যান। তিনি ২০০২ সালে এটি রেকর্ড ৭.৬ মিলিয়ন ডলারে ক্রয় করেছিলেন। যদিও এই স্বর্ণমুদ্রাটির আসল মূল্য মাত্র ২০ ডলার।
১৯৩৩ সালে ফ্রাঙ্কলিন রুজভেল্ট যখন যুক্তরাষ্ট্রকে গোল্ড স্টান্ডার্ড থেকে বের করে নিয়ে আসেন। তারপর থেকে এই কয়েন আর কখনওই ইস্যু করা হয়নি। স্বর্ণমুদ্রাটির নকশা করেন মার্কিন স্থপতি অগাস্টাস সেইন্ট গউডেনস। সুথিবি’স নিলাম কর্তৃপক্ষ এটি সম্পর্কে বলেছে, বাজারে সার্কুলেশনের উদ্দেশে তৈরি করা যুক্তরাষ্ট্রের সর্বশেষ কয়েন হওয়ায় এটি বিশ্বের সবচেয়ে আকাক্সিক্ষত মুদ্রাগুলোর একটি। স্টুয়ার্ট মঙ্গলবারই আরেকটি বৃটিশ এক সেন্টের স্ট্যা¤প নিলামে তোলেন, যা বিক্রি হয় ৮.৩ মিলিয়ন ডলারে। ১৮৫৬ সালে ওই স্ট্যাম্পটি ইস্যু করা হয়েছিল। বর্তমানে এটিই ইতিহাসের সবথেকে দামি স্ট্যা¤প। তবে স্ট্যাম্প ও স্বর্ণমুদ্রাটি যারা কিনেছেন তারা নিজেদের পরিচয় গোপন রেখেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর