× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

বিদায় বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক
১১ জুন ২০২১, শুক্রবার

চলে গেলেন ভারতের কিংবদন্তি পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। গতকাল সকালে দক্ষিণ কলকাতায় নিজের বাড়িতেই মৃত্যু হয় তার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। দীর্ঘদিন ধরেই কিডনির অসুখে ভুগছিলেন প্রবীণ এই পরিচালক। বাংলা সিনেমা এবং কবিতা দুই জগতেই অবাধ বিচরণ ছিল বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের। তৈরি করেছেন ‘বাঘ বাহাদুর’, ‘লাল দরজা’, ‘চরাচর’, ‘মন্দ মেয়ের উপাখ্যান’, ‘কালপুরুষ’, ‘উত্তরা’, ‘স্বপ্নের দিন’, ‘তাহাদের কথার মত ছবি’র মতো চলচ্চিত্র। ‘তাহাদের কথা’র মতো ছবিতে এক অন্য মিঠুন চক্রবর্তীকে উপহার দিয়েছিলেন তিনি, তেমনই শেষ বয়সেও ‘আনোয়ার কা আজিব কিস্‌সা’ ছবিতে নাওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীকে ব্যবহার করে চমকে দিয়েছিলেন। পরাধীন ভারতে ১৯৪৪ সালে পুরুলিয়ার আরায় জন্ম বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের।
আমৃত্যু পুরুলিয়ার অনুষঙ্গ ফিরে এসেছে তার প্রতিটি কাজে। বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত পেশাগত জীবন শুরু করেন অধ্যাপক হিসেবে। অর্থনীতির তত্ত্ব আর বাস্তব জীবনের দূরত্বই তাকে সিনেমায় টেনে আনে। বুদ্ধদেব কলকাতা ফিল্ম সোসাইটির সঙ্গে যুক্ত হন। প্রথমেই বানান একটি ১০ মিনিটের তথ্যচিত্র। পূর্ণদৈর্ঘ্যের সিনেমা হিসেবে ‘দূরত্ব’ তাকে প্রথম খ্যাতি এনে দেয়। মৃণাল সেন, ঋত্বিক ঘটক, সত্যজিৎ রায়-এই ত্রয়ী বাংলা ছবিতে যে সাংস্কৃতিক রেনেসাঁ এনেছিলেন তার যোগ্য উত্তরাধিকারী ছিলেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। অন্তত ১১টি ছবির জন্য নানা সময়ে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। লোকার্নো, কান, বার্লিনের মতো নামজাদা আন্তর্জাতিক ফেস্টিভ্যালে তার ছবি প্রশংসিত হয়েছে। বাঙালি তাকে মনে রাখবে কমলকুমার মজুমদারের গল্প অবলম্বনে ‘নিম অন্নপূর্ণা’ বা ‘তাহাদের কথা’-র মতো কালজয়ী ছবির জন্য।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর