× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯ জিলক্বদ ১৪৪২ হিঃ

পাওনা ৩ লাখ টাকা না পেয়ে মালিকের ৫ কোটি মুল্যের বাড়ি ধ্বংস!

অনলাইন

মানবজমিন ডিজিটাল
(১ সপ্তাহ আগে) জুন ১০, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৫০ অপরাহ্ন

মানুষ রাগের বসে কতকিছুই না করে। কখনো বা রেগে হয় প্রতিশোধ নিতে মরিয়া। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা সামনে এসেছে। প্রতিশোধ নিতে তুঘলকি কাণ্ড ঘটিয়েছেন এক রাজমিস্ত্রী। তিনি কাজ করেও নাকি বাকি তিন লাখ টাকা পাচ্ছিলেন না মালিকের কাছ থেকে। রাগ আর ক্ষোভে মালিকের ৫ কোটি টাকা মুল্যের বাড়ি ধ্বংস করে দিয়েছেন তিনি।
ঘটনার ভেতরে যাওয়া যাক...
৪০ বছর বয়সী ইংল্যান্ডের লেস্টারের স্টোনিগেটের বাসিন্দা জে কুর্জি।
এই এলাকাতেই সম্প্রতি একটি বাড়ি কিনেছিলেন তিনি।
তবে বাড়িটি তার কাছে বসবাসযোগ্য মনে হয়নি। সেটিকে আরও পরিবর্তন করে বাসযোগ্য করতে খরচ করেছেন চার কোটি ৮৮ লাখ ৭২ হাজার টাকা।
বাড়িটির মেরামত কাজ শুরু হয় এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে। দোতলার সঙ্গে আরও একটি বর্ধিত কাঠামো তৈরি করেন তিনি।
নতুন করে বিদ্যুৎ সংযোগের পাশাপাশি বাড়ির ছাদসহ চারপাশের ডিজাইনই পরিবর্তন করেন। করে তুলেন আরও আকর্ষণীয়। কিন্তু তবুও তিনি কোন একটা কিছুতে খুঁত পেয়েছিলেন। সর্বোপরি যে মিস্ত্রী এই মেরামতের কাজ করেছেন তার ওপর নাখোশ হলেন। মিস্ত্রী নাকি তার চাহিদামাফিক কাজ করে দিতে পারেনি।বাড়িটি আরও সুন্দর হওয়ার কথা ছিল তার ভাষ্যমতে।



ওদিকে মিস্ত্রী তার হাতে ধরিয়ে দেন মোটা অংকের বিল। বিলবাবদ মিস্ত্রীকে ৪ কোটি ৮৮ লাখ ৭২ হাজার টাকা পরিশোধও করেন জে কুর্জি।
কিন্তু মিস্ত্রীর দাবি, আরও তিন লাখ ৬০ হাজার টাকা তাকে দেয়া হোক।

জে কুর্জি আর এক পয়সাও নাকি দেবেন না। এ নিয়ে দু'জনের মধ্যে শুরু হয় বিবাদ। মিস্ত্রী কোনোভাবেই তার তিন লাখ টাকা আদায় করতে পারছিলেন না। সুযোগ খুঁজছিলেন প্রতিশোধের।
কিছুদিন পর সে সুযোগ এসেও যায়।
সম্প্রতি বাড়ি থেকে দূরে পরিবারসহ ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন জে। এমন খবর পেয়েই লোকজন নিয়ে তার ফাঁকা বাড়িতে হানা দেয় ওই মিস্ত্রি।

বাড়ির ছাদ, বর্ধিত অংশ-সহ অনেক জায়গাই ভেঙে দেন তিনি, নষ্ট করেন সব সৌন্দর্য। খবর পৌঁছে যায় জে'র কানে । তিনি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।
কিন্তু শেষ পর্যন্ত নাকি কোনো সুরাহাই হয়নি এই ঘটনার, এমনটাই জানা গেছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর