× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২০ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ
কলকাতা কথকতা

অভিযানে বেরিয়েছেন প্রশান্ত কিশোর, শরদ পাওয়ারের সঙ্গে লাঞ্চ, ডিনার শাহরুখের মন্নতে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(১ মাস আগে) জুন ১২, ২০২১, শনিবার, ২:৩৫ অপরাহ্ন

কলকাতার তৃণমূল ভবনে মুকুল রায় যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে বসে দলে ফিরছেন, ঠিক তখন মুম্বাইয়ে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারের বাড়িতে বসে মধ্যাহ্নভোজ সারছেন প্রশান্ত কিশোর, যে ভোট স্ট্রাটেজিস্টকে বাংলা পি কে নামেই চেনে। দুপুরে শরদ পাওয়ারের বাড়িতে তো শুক্রবার রাতে শাহরুখ খানের বাংলোতে ডিনার। মনে করার কোনো কারণ নেই যে পি কে নিছক সৌজন্য সাক্ষাৎকারে গেছেন। লক্ষ্য একটাই সর্বভারতীয় স্তরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূলকে প্রতিষ্ঠা করা। শুধু পাওয়ার বা শাহরুখ নয়, পি  কে ঘুরবেন আসমুদ্র হিমাচল, কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী। বাজাবেন সর্বভারতীয় বিজেপি বিরোধী দলগুলিকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ইউ পি এ চেয়ারপারসনের পদে বসিয়ে বিরোধী ঐক্যকে তুলে ধরার একটি প্রয়াস তার আছে। কিন্তু, প্রশ্ন হল ইউ পি এ চেয়ারপারসনের পদে আছেন সোনিয়া গান্ধী।
তিনি সেই চেয়ার ছাড়বেন কেন? এই ফর্মুলাও তৈরি আছে পি কের কাছে। রাহুল গান্ধীকে যদি প্রজেক্টেড প্রধানমন্ত্রী করা যায় তাহলে সোনিয়ার চেয়ারপারসনের পদ ছাড়তে সমস্যা নেই। রাজনীতি হল সম্ভাবনার আকর- এই আপ্তবাক্য সামনে রেখে পি কে সর্বভারতীয় নেতাদের সঙ্গে দেখা করবেন। এই সপ্তাহেই মমতা, অভিষেক, মুকুল এবং তার বৈঠক হওয়ার কথা। সেখানেই তৈরি হতে পারে ভবিষ্যৎ এর রূপরেখা। শাহরুখ খান এই মানচিত্রে আসছেন কেন? বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর এর সঙ্গে পি কের পরিচয় করিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। মমতা সর্বভারতীয় রাজনীতিতে এলে কেমন হবে সেই ধ্যান ধারণা নিতেই ডিনার শাহরুখের বাড়িতে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর