× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

এরিকসেনের ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছে জামাল-তারিককেও

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
১৪ জুন ২০২১, সোমবার

লাল সবুজের জার্সিতে খেললেও জামাল ভূঁইয়ার জন্ম ডেনমার্কে। বাংলাদেশ দলের আরেক প্রবাসী ফুটবলার তারিক কাজীর জন্ম ফিনল্যান্ডে। তাইতো ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচে তাই চোখ ছিল দু’জনের। ম্যাচের ফলের চেয়ে তাদের নাড়িয়ে দিয়েছে ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের ঘটনা। কোপেনহেগেনের পারকেন স্টেডিয়ামে গত শনিবার ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ‘বি’ গ্রুপে ম্যাচের ৪৩তম মিনিটে হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎ পড়ে যান এরিকসেন। তখনই ছুটে যান দুই দলের খেলোয়াড়রা। মাঠে শুরু হয় চিকিৎসা। দেয়া হয় সিপিআর।
পরে হাসপাতালে নেয়া হয় এরিকসেনকে। তার অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানানো হয়।
বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে জামাল ও তারিক বর্তমানে কাতারের দোহায়। ওমান ম্যাচের প্রস্তুতির মধ্যেও ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচ দেখতে বসেছিলেন দু’জনে। মুঠোফোনে বার্তাও চালাচালি করছিলেন নিজ-নিজ দলের সমর্থনে। কিন্তু এরিকসেনের ঘটনায় স্তম্ভিত জামাল। স্মরণ করলেন কৈশোরে এরিকসেনের বিপক্ষে খেলার স্মৃতি। জামাল বলেন, যখন শুনলাম এরিকসেনের হার্ট অ্যাটাক হয়েছে, অনেক অনেক খারাপ লেগেছে। শুধু তার জন্য নয়, ডেনমার্ক দলের খেলোয়াড়দের জন্যও, যারা ওর সঙ্গে খেলে এবং ওর পরিবারের জন্য খারাপ লেগেছে। যারা ফুটবল খেলে, পেশাদার, অপেশাদার সবাই ওর জন্য দোয়া করছে।’ এরিকসনের বিপক্ষে দুইবার খেলার কথা জানিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ওর বিপক্ষে আমি খেলেছি। যখন আমাদের বয়স ১৫ বা ১৬ বছর ছিল, এটা তার আয়াক্সে যোগ দেয়ার আগে। ওই সময় ম্যাচের আগে আমাদের কোচ আমাকে বললো, প্রতিপক্ষ দলে একজন বিস্ময় বালক আছে। ওই সময় আমি মনে করেছি, বিস্ময় বালক কি করবে, আমি ওকে মেরে ফেলবো (হাসি) কিন্তু যখন ম্যাচ শুরু হলো, আমরা এগিয়ে ছিলাম, তখন ও একেবারে আচমকা দুইটা গোল করলো। ওই ম্যাচ আমরা জিতেছিলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে ও আবার আমাদের বিপক্ষে দুটো গোল করলো। ওই মুহূর্তে বুঝতে পারলাম ছেলেটা (এরিকসেন) বিস্ময় বালক। এক মাস পর আয়াক্স ওকে কিনে নিলো।’ শনিবারের ঘটনাবহুল ম্যাচে ১-০ গোলে জিতে তারিকের দল ফিনল্যান্ড। দলের জয়ে স্বাভাবিকভাবে খুশি এই ডিফেন্ডার। কিন্তু এরিকসেনের দ্রুত মাঠে ফেরার অপেক্ষায় আছেন তিনিও। তারিক কাজী বলেন, ডেনমার্কের বিপক্ষে চমৎকার জয় দিয়ে ফিনল্যান্ড ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করেছে। তবে এই ফল মুখ্য নয়, কেননা, আমরা সবাই জানি ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের কি হয়েছিল। এটা খুবই দুঃখজনক। ক্রিস্টিয়ান ও তার পরিবারের জন্য সমবেদনা। আশা করি, সে সেরে উঠছে এবং দ্রুত রিকভার করে শিগগিরই মাঠে ফিরবে।’ জামালের বিপক্ষে দ্বৈরথে জিতে খুশি তারিক বলেন, ‘জামাল যেহেতু ডেনমার্কের, সেহেতু ওর সঙ্গে আমার একটা দ্বৈরথ আছে। ওকে বলেছিলাম ফিনল্যান্ড জিতবে এবং সেও তার ডেনমার্কের পক্ষে ছিল। ভালো ফলটা পেয়েছি আমিই’।
কাতারের দোহায় জসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে আগামীকাল বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে ওমানের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষকে শক্তিশালী মানলেও ভালো ফল পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী তারিক বলেন, ওমান খুবই কঠিন প্রতিপক্ষ। জমাট এবং ভালো দল। তারা বল পায়ে রাখবে। গত সপ্তাহে আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি, দলের প্রতি আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আশা করি, ভালো একটি ফল পাবো ওমানের বিপক্ষে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর