× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৫ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২১ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

সংসদে পরীমণির ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার
১৪ জুন ২০২১, সোমবার

ঢাকাই সিনেমার নায়িকা পরীমণি ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার উল্লেখ করে সংসদে এর শাস্তি দাবি করেছেন বিএনপির এমপি হারুনুর রশিদ। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, সত্যিকার অর্থে যে বিষয়গুলো আজকে বিরাট আকারের সরকারকে নাড়া দিয়েছে সেই বিষয়গুলোকে সরকার দৃষ্টিতে নেবেন। পরীমণি বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত শিল্পী। তিনি যে ঘটনার শিকার হয়েছেন, চার দিন থেকে তিনি বিচারপ্রার্থী। কিন্তু বিচার পাচ্ছেন না। এটা কি অসত্য মাননীয় স্পিকার? রোববার (১৪ জুন) জাতীয় সংসদে আয়োডিনযুক্ত লবণ বিল-২০২১ আইনটি পাসের সময় জনমত যাচাই-বাছাইয়ের প্রস্তাব ও সংশোধনীর আলোচনায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে জনমত যাচাইয়ের সময় হারুন বলেন, বাংলাদেশে আইন আছে কিন্তু তার ব্যবহার নেই। অভিনেত্রী পরীমণির মতো ব্যক্তি ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার।
কিন্তু আইন থাকার পরও বিচার পাচ্ছেন না তিনি। হারুনুর রশীদ বলেন, সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নেই। অবশ্যই এর সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। গতকাল এ ব্যাপারে সমস্ত মিডিয়ায় প্রচার হয়েছে আমার আর কী বলার আছে।

প্রসঙ্গত, ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিনসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন অভিনেত্রী পরীমণি। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে সাভার থানায় মামলাটি করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
মামুন
১৪ জুন ২০২১, সোমবার, ৬:৪৭

ভাই, সুযোগ পেলে আপনিও ছাড়বেন না। একটু স্বাদ নেওয়ার চেস্টা করবেন। খামাখা শাস্তি চেয়ে কি লাভ।

Md.Shamsul Alam
১৪ জুন ২০২১, সোমবার, ২:২৩

Thanks Selim Bhi for your true comments বড় বড় রাঘব বোয়ালদের কিছুই হবে না। তারা বরাবরের মতো ধরা ছোঁয়ার বাইরেই থেকে যাবে। সব আইন গরিবের উপর ই প্রয়োগ করা হয়ে থাকে। যারা নিরীহ। শুধু তাই নয়, যারা নিরহ তারা বিনা অপরাধে ও জেল খাটতে হয়। বিরোধী দল ও মতের লোক হলে তাদের অপরাধ লাগে না। তারা এমনিতেই গুন্ডাদের হামলার শিকার হয়। আবার উল্টো মামলার শিকার হয়। জেলে যেতে হয়। আর এজাতীয় টাকা, পয়সা, ধন সম্পত্তির মালিকরা, সরকার দলীয় লোকেরা অপরাধ করেও ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। এটা এখন বাংলাদেশের নিয়মে পরিণত হয়েছে। দেশ উন্নত হয়েছে। স্লোগান শুনতে শুনতে কান বধির হয়ে গেছে।

salim khan
১৪ জুন ২০২১, সোমবার, ২:১২

বড় বড় রাঘব বোয়ালদের কিছুই হবে না। তারা বরাবরের মতো ধরা ছোঁয়ার বাইরেই থেকে যাবে। সব আইন গরিবের উপর ই প্রয়োগ করা হয়ে থাকে। যারা নিরীহ। শুধু তাই নয়, যারা নিরহ তারা বিনা অপরাধে ও জেল খাটতে হয়। বিরোধী দল ও মতের লোক হলে তাদের অপরাধ লাগে না। তারা এমনিতেই গুন্ডাদের হামলার শিকার হয়। আবার উল্টো মামলার শিকার হয়। জেলে যেতে হয়। আর এজাতীয় টাকা, পয়সা, ধন সম্পত্তির মালিকরা, সরকার দলীয় লোকেরা অপরাধ করেও ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। এটা এখন বাংলাদেশের নিয়মে পরিণত হয়েছে। দেশ উন্নত হয়েছে। স্লোগান শুনতে শুনতে কান বধির হয়ে গেছে।

Kuddus Hawladar
১৪ জুন ২০২১, সোমবার, ২:১১

সংসদে আবু ত্বাহা মুহাম্মদ আদনান কে নিয়ে কিছু বলুন।

অন্যান্য খবর