× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ
শুরুতেই ফাইনালের আমেজ

জার্মানির মুখোমুখি ফ্রান্স

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৫ জুন ২০২১, মঙ্গলবার

গত ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ সেমিফাইনালে ফ্রান্সের কাছে হেরে বাদ পড়ে জার্মানি। এবার দু’দলের দেখা হয়ে যাচ্ছে গ্রুপ পর্বেই। আসরের গ্রুপ অব ডেথ খ্যাত ‘এফ’ গ্রুপে দু’দলের এটা প্রথম ম্যাচ। জার্মানদের কাছে এটা হতে পারে প্রতিশোধের লড়াই। মহাদেশীয় আসরে প্রথমবার গ্রুপ পর্বে দেখা হচ্ছে জার্মানি-ফ্রান্সের। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের মুকুট মাথায় ইউরোয় এসেছে ফ্রান্স। দিদিয়ের দেশমের দল আসরের অন্যতম ফেভারিট। জার্মানিও পিছিয়ে নেই।
জার্মানির মিউনিখে দুই পরাশক্তির লড়াই শুরু বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়।
২০০৬ সাল থেকে জার্মানির প্রধান কোচের পদে জোয়াকিম লো। ইউরো শেষে বিদায় বলবেন জার্মানিকে। ২০১৪ বিশ্বকাপজয়ী এই কোচ বিদায়টা রাঙাতে চাইবেন ইউরোয় ভালো কিছু করে। অধিনায়ক ও কোচ হিসেবে ফ্রান্সকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছেন দিদিয়ের দেশম। অধিনায়ক হিসেবে ইউরো জিতলেও কোচ হিসেবে সেই স্বাদ পাওয়া হয়নি তার। দ্বৈত ভূমিকায় ইউরো জেতার লক্ষ্যে দেশমের প্রতিপক্ষ বন্ধু জোয়াকিম লোয়ের জার্মানি। বন্ধুর বিপক্ষে লড়াইটা উপভোগ করেন বলেই জানালেন দেশম। তিনি বলেন, ‘তার সঙ্গে আমার সম্পর্কটা বন্ধুর মতো। আমরা একে অপরকে পছন্দ করি। বেশ কয়েকবার মুখোমুখিও হয়েছি। একে অপরের বিপক্ষে লড়াইয়ের সময় আমরা ম্যাচে এবং ফুটবলারদের ওপরই চোখ রাখি। সে যা করেছে তাতে আমার সর্বোচ্চ সম্মান রয়েছে। কিছু কিছু সময় খুবই কঠিন কেটেছে। মিউনিখে তার সঙ্গে দেখা হলে হাসি দিয়ে তার সেই অর্জনকে সম্মান জানাতে চাই।’
লোয়ের অধীনে জার্মানির বিশ্বকাপ জয়ের সঙ্গে দুটি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। ইউরোয় একবার রানার্সআপ ও দুইবার সেমিফাইনাল খেলেছে জার্মানি। আছে ২০১৮ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ার লজ্জাও। গত এপ্রিলে নবীন দেশ নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে হারের তেতো স্বাদও পেয়েছে লোয়ের দল। একঝাঁক তরুণদের নিয়ে ঘরের মাঠ মিউনিখের আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ফ্রান্সকে আতিথ্য দেবে জার্মানি। ইউরোর আগে খেলা শেষ দুই ম্যাচে জয়হীন তারা। তবে বড় মঞ্চে সব সময় ফেভারিট জার্মানি। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের সামর্থ্য অজানা নয় লোয়ের। তিনি বলেন, ‘ফ্রান্স দলটা দুর্দান্ত। যেকোনো পরিস্থিতিতে মানিয়ে নিতে পারে এমন দলগুলোর মধ্যে তারাই সেরা। তবে নিজেদের সামর্থ্যে আমাদের বিশ্বাস আছে। এই আত্মবিশ্বাস নিয়েই আমরা মাঠে নামবো। মাঠ, দর্শক সবকিছুই আমাদের অনুকূলে থাকবে।’
ছয় বছর পর জাতীয় দলে ফেরা করিম বেনজেমা চোট কাটিয়ে জার্মানির বিপক্ষে খেলবেন। আক্রমণভাগে কিলিয়ান এমবাপ্পে, আঁতোয়ান গ্রিজম্যানদের দ্রুত গতির আক্রমণ সামলাতে বড় পরীক্ষাই দিতে হবে জার্মানিকে। তবে সর্বশেষ উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগজয়ী চেলসির দুই জার্মান ফরোয়ার্ড কাই হাভার্টজ ও টিমো ভারনার নিশ্চয়ই চাঙ্গা রয়েছেন। দলে ভূমিকা রাখবে টনি ক্রুস, ইলকাই গুনদোয়ানদের অভিজ্ঞতাও।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর