× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

স্বরাষ্ট্রতে এনআইডি গেলে সুষ্ঠু নির্বাচনের সম্ভাবনা বিনষ্ট হবে

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
১৫ জুন ২০২১, মঙ্গলবার

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান। আর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সরকারের অধীনে একটি মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত 
কর্তৃত্ব হস্তান্তর করা হলে স্বাধীন, নিরপেক্ষ, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ন্যূনতম সম্ভাবনাটুকু বিনষ্ট হবে। গতকাল গুলশান বিএনপি’র চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এ হস্তান্তর কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব।
তিনি বলেন, বিএনপি’র স্থায়ী কমিটি মনে করে, এ ধরনের সিদ্ধান্ত হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হলে তা ভবিষ্যতে গণতন্ত্রের ন্যূনতম পরিসরকেও ধ্বংস করবে। শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রক্রিয়াকে চিরতরে ধ্বংস করবে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এক মন্তব্যের জবাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, শেকড় আছে বলেই বিএনপি টিকে আছে। এত নির্যাতন, গুম-খুন, হাজার হাজার মামলার পরও বিএনপি টিকে আছে।
দেশের ঋণনির্ভরতা নিয়ে তিনি বলেন, এটা এখন শেষ সীমায় এসে পৌঁছে যাচ্ছে। গত এক যুগ ধরে সরকারের ভ্রান্ত অর্থনৈতিক নীতির বাস্তবায়ন চলছে।
যার প্রভাবে এক ধরনের মন্দাভাব চলছে, উৎপাদন খাত শ্লথ হয়ে পড়েছে।
আওয়ামী লীগের রাজনীতি নেই
মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগের তো রাজনীতি নাই। এজন্য তাদের ম্যাডামের জন্মদিন, কখনো অমুক ইস্যু, কখনো তমুক ইস্যু নিয়ে কথা বলতে হয়। এখন বলেন, আগামী নির্বাচন কীভাবে হবে, কীভাবে বিচার বিভাগ ঠিক হবে, সেই স্বপ্ন দেখান মানুষকে। জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ায় তাদের কোনো রাজনীতি নেই।
বিএনপি’র মহাসচিব আরও বলেন, আপনারা বলেন, বিএনপি নেই। তাহলে বিএনপিকে নিয়ে এত কথা কেন? নির্বাচন তো করতেই দেন না। কাউকেই নির্বাচন করতে দেন না।
বিএনপি’র শেকড় আছে বলেই মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে, টিকে আছে উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, বিএনপি এই দেশের মানুষের অনেক গভীরে পৌঁছে গেছে।
ফেসবুক নিয়ে উদ্বিগ্ন
বিএনপি’র মহাসচিব বলেন, ফেসবুকের রহস্য নিয়ে নিজেও উদ্বিগ্ন। আগেও বলেছি, ফেসবুকে নোটিশ দিয়েছি, তারপরও দেখি আমার নামে অ্যাকাউন্ট খোলা আছে। হোয়াট ইজ দ্য ইনটেনশন। জিডি করেছি। নিজে চারবার স্টেটমেন্ট দিয়েছি। মামলা করেছি। এ সময় তিনি জানান, তার অজান্তে টুইট করার বিষয়টি তিনি চেক করে দেখবেন।
গত শনিবার বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।


 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
এ কে এম মহীউদ্দীন
১৫ জুন ২০২১, মঙ্গলবার, ৮:২৯

সব ব্যপারে এই ভদ্রলোকের প্রতিক্রিয়া এতো ক্ষীণ হয় কেন? ইনি কী রাজনীতি করবেন?

কাজী
১৪ জুন ২০২১, সোমবার, ৪:২০

নির্বাচন ছাড়া এদের মাথায় কিছু ঢুকে না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এনআইডি গেলে আর ও অনেক সমস্যা হবে, সেটা তারা দেখে না ? এরা আবার নাকি বিজ্ঞ রাজনীতি বিদ।

অন্যান্য খবর