× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

কোপায় হু হু করে বাড়ছে করোনা, আক্রান্ত ৩১

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৬ জুন ২০২১, বুধবার

করোনার কারণে আর্জেন্টিনা থেকে কোপা আমেরিকা চলে যায় ব্রাজিলে। কিন্তু ব্রাজিলে করোনার অবস্থা আরো ভয়াবহ। তাইতো করোনায় বিপর্যস্ত ব্রাজিলে কোপা আমেরিকা আয়োজন নিয়ে শুরু থেকেই প্রশ্ন উঠেছে। দেশটির সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত তা গড়িয়েছে। এসব পাশ কাটিয়ে মাঠে গড়িয়েছে কোপা। সঙ্গে করোনাও চেপে ধরেছে টুর্নামেন্টটিকে। ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কোপা আমেরিকার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট খেলোয়াড়, স্টাফ এবং বাকিরা সহ মোট ৩১ জন করোনায় আক্রান্ত।
১০ দলের এই টুর্নামেন্টে আগেই বলা হয়েছিল, প্রতি ৪৭ ঘণ্টা অন্তর দলগুলোকে বাধ্যতামূলক করোনা পরীক্ষা করাতে হবে। গত রোববার পর্যন্ত মোট ৩১ জনের কোভিড-১৯ ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।
ব্রাসিলিয়ায় যেসব হোটেলে খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা অবস্থান করছেন সেসব হোটেলের কর্মীদের মধ্যে আরও ১০ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ ঘটেছে। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মার্সেলো কুয়েইরোগা সংবাদকর্মীদের এ তথ্য দিয়েছেন।
কলম্বিয়ায় রাজনৈতিক অস্থিরতা ও আর্জেন্টিনায় করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ দুটি দেশ থেকে আয়োজন সরিয়ে মাত্র দুই সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে এটি ব্রাজিলে হচ্ছে। তখন এ নিয়ে আপত্তি উঠলেও ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনেরো কোপা আমেরিকা আয়োজনে সবুজ সংকেত দেন। ব্রাজিলের খেলোয়াড়েরাই এ নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন। পরে অবশ্য দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে রাজি হন খেলোয়াড়েরা। এক জরিপে জানা গেছে, ব্রাজিলের দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ তাদের দেশে কোপা আমেরিকা আয়োজনের বিপক্ষে।
ব্রাজিলের সুপ্রিম কোর্ট কোপা আমেরিকা আয়োজন নিয়ে শুরুতে আপত্তি তুললেও পরে আর বাধা দেয়নি। এমনকি লিওনেল মেসির মতো তারকাও কোপা আমেরিকা খেলতে এসে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ের কথা জানিয়েছেন। সোমবার রাতে চিলি-আর্জেন্টিনা ১-১ ড্র ম্যাচের আগে মেসি বলেন, ‘আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। কারণ সবারই কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। সবাই সতর্ক থাকার চেষ্টা করলেও কাজটা তো সহজ নয়। এগুলো এভাবেই হয়। আমরা সতর্ক থাকতে সম্ভাব্য সবকিছুই করার চেষ্টা করব। কিন্তু সব সময় তো আমাদের কিংবা একজনের ওপর সব নির্ভর করে না।’ কোপা আমেরিকার উদ্বোধনী ম্যাচের আগে ভেনেজুয়েলার খেলোয়াড় ও স্টাফ মিলিয়ে মোট ১২ জন করোনায় আক্রান্ত হন। এর মধ্যে নয়জন ছিলেন মূল দলের খেলোয়াড়। তাদের ছাড়াই খেলতে নেমে ব্রাজিলের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হারে ভেনেজুয়েলা। কলম্বিয়া দলে দুজন স্টাফের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর জানা গেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর