× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ
কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের গাড়িতে হামলা

জুড়ীতে আওয়ামী লীগের দ্বন্দ্ব চরমে

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে
১৬ জুন ২০২১, বুধবার

সংগঠনবিরোধী কার্যকলাপের দায়ে মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে যুবলীগের এক সহ-সভাপতিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। গত সোমবার রাতে জেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগ পৃথকভাবে এই চিঠি ইস্যু করে। জুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন নিয়ে জেলাজুড়ে আওয়ামী লীগের দ্বন্দ্ব এখন চরমে।
জানা গেছে, গত রোববার থেকে হঠাৎ করেই অশান্ত হয়ে উঠে জুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতি। নেতাকর্মীরা বলছেন, এর নেপথ্যের দায়ী উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আহমদ কামাল অহিদ। তিনি স্থানীয় এমপি এবং পরিবেশ বন ও জলবায়ু বিষয়ক মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের খালাতো ভাই। নেতাকর্মীরা জানান, মন্ত্রীর খালাতো ভাই অহিদ রাজনৈতিক অঙ্গনে নিজের প্রভাব বিস্তার করতেই মূলত এই অশান্তির জাল বিস্তার করেছেন। তারা বলছেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূঁইয়া উজ্জ্বলকে ব্যবহার করে গড়ে তুলেছেন একটি নিজস্ব বলয়।
যাদের দিয়ে তিনি চালান নানা অপকর্ম। সম্প্রতি কলার ছবি ফেসবুকে দেয়ার ঘটনা নিয়ে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী স্বপন মিয়াকে তুলে নিয়ে নির্যাতন চালান ছাত্রলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল। ছাত্রলীগ সভাপতির এমন কর্মকাণ্ডের আশ্রয়দাতা যুবলীগ নেতা অহিদ। এপ্রিল মাসে মন্ত্রী প্রসঙ্গে কথা বলা নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সামসুজ্জামান রানু মহালদারের বাসায় যুবলীগের সহ-সভাপতি আহমদ কামাল অহিদের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। এ হামলার ঘটনার ১৩ই জুন জুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেনের বাসায় সালিশ বৈঠক হয়। বন পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন রুদ্ধদ্বার বৈঠক করে বিষয়টি নিষ্পত্তি করেন। অভিযোগ উঠেছে মন্ত্রী জুড়ী থেকে বড়লেখার উদ্দেশে রওয়ানার কিছু সময়ের মধ্যেই অহিদের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইনের গাড়িতে হামলা চালায়। ওই ঘটনায় সোমবার রাতে ছাত্রলীগ জুড়ীতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইনের গাড়িতে হামলার ঘটনায় মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বিকাশ ভৌমিক ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুজন কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন। ওই নোটিশে ৩ কার্যদিবসের ভেতরে জুড়ী যুবলীগের সহ-সভাপতি আহমদ কামাল অহিদকে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে। এছাড়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ আমিরুল হোসেন চৌধুরী আমীন ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম একই দিনে জুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সংগঠনবিরোধী কার্যকলাপের দায়ে সকল সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করেন। এদিকে জুড়ী থানা পুলিশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইনের গাড়িতে হামলার ঘটনায় আরিফ নামের এক যুবককে আটক করেছে।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত জুড়ী উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আহমদ কামাল অহিদ জানান, আমি ঘটনার সঙ্গে জড়িত নই। জেলা যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আমি এর জবাব দিবো।
এ বিষয়ে জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। ছাত্রলীগ সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনের গাড়িতে হামলার ঘটনায় আটক যুবক আরিফকে ১৫১ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর