× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৯ জুলাই ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১৮ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

চলে গেলেন বরেণ্য অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক
১৬ জুন ২০২১, বুধবার

চলে গেলেন পশ্চিমবঙ্গের বরেণ্য অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। আজ দুপুর ২টায় কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। স্বাতীলেখার মেয়ের জামাই সপ্তর্ষি মৌলিক বলেন, অনেক দিন ধরেই অসুস্থ। গত মাসের ২২ তারিখ থেকে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। একবার স্ট্রোক হয়েছিল। কিডনিজনিত সমস্যাও ছিল। আজ সকাল থেকে সিআরটি প্রোটিন আবারো বেড়ে যায়।
সেখান থেকেই আবার হার্ট অ্যাটাক হয়। কিডনির সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। তার ডায়ালাইসিস চলছিল। ১৯৭০ সালের শুরুর দিকে এলাহাবাদে এ. সি. বন্দ্যোপাধ্যায়ের অধীনে স্বাতীলেখা থিয়েটারে কাজ শুরু করেন। কাজ করতে গিয়ে বি. ভি. কারাট, তাপস সেন ও খালেদ চৌধুরীর মতো মানুষের উৎসাহ পেয়েছেন। পরবর্তীতে কলকাতায় গিয়ে নান্দীকর নাট্যদলে যোগদান করেন স্বাতীলেখা। ১৯৭৫ সালে সত্যজিৎ রায় নির্দেশিত ‘ঘরে বাইরে’ সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। এতে ‘বিমলা’ চরিত্রে অভিনয় করে দারুণ প্রশংসা কুড়ান এই শিল্পী। শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের সিনেমার দর্শকদের কাছে খুব চেনা মুখ স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। ‘বেলাশেষে’ ও ‘বেলাশুরু’ সিনেমায় একসঙ্গে কাজ করেছেন তারা। ‘বেলাশেষে’ সিনেমায় স্বাতীলেখা ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সম্পর্কের রসায়ন মন কেড়েছিল দর্শকদের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর