× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২০ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

ইসরাইলি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি গাজার প্রতিরোধ যোদ্ধাদের

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জুন ১৮, ২০২১, শুক্রবার, ৬:১২ অপরাহ্ন

একটি ইসরাইলি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে গাজার প্রতিরোধ যোদ্ধারা। শুক্রবার গাজার পশ্চিমাঞ্চলে এই ড্রোন ধ্বংসের ঘটনা ঘটে বলে জানানো হয়েছে ফিলিস্তিনি গণমাধ্যমগুলোতে। সাবেরিন নিউজ, সি নিউজ ও আকসাটিভিসহ বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমেই ওই দাবির কথা প্রচারিত হয়েছে।

গণমাধ্যমের খবর থেকে জানা যায়, একটি হামলা পরিচালনা করতে গাজায় প্রবেশ করে ওই ড্রোন। হামলা চালায় বেইত লাহিয়ায় একটি ঘাটিতেও। তবে এরপরই এটিকে ধ্বংস করতে সক্ষম হয় ফিলিস্তিনিরা। তবে ড্রোনটি কোন মডেলের এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কেমন সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

এর আগে গত ২১ মে যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছিল ইসরাইল ও গাজার ইরান সমর্থিত গোষ্ঠী হামাস।
১১ দিনের যুদ্ধের পর উভয় পক্ষ নিজেদের বিজয় দাবি করেছিল। তবে সম্প্রতি ইসরাইলে নতুন সরকার গঠন করা হয়েছে। এরপরই নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। পুরাতন জেরুজালেমে ইহুদিদের মিছিল করার অনুমতি দেয় নতুন সরকার। এরইভিত্তিতে ইসরাইলে বেলুন হামলা চালায় হামাস। জবাবে গত দুদিন ধরে গাজার বিভিন্ন স্থাপনা টার্গেট করে হামলা চালিয়েছে ইসরাইল। এসব হামলায় ড্রোন ব্যবহার করে দেশটি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Khokon
১৮ জুন ২০২১, শুক্রবার, ৮:৪৬

বোকারা নাকি হাটে একলা একলা ও হাসে তাই হামাসদের বীরত্বের গল্প কাহিনী শুনে সেই কথাটিই মনে পড়ছে ! শত শত মানুষ মারা যাচ্ছে, শত শত বাড়ি ঘর ভেঙ্গে মাটিতে মিশিয়ে দিচ্ছে আর একটা দুইটা ড্রোন আঘাত এনে যেনো স্বর্গের রাজ্যে গেছে ? প্রতিরোধ গড়ে তোল যেমন, ওরা তোদের মাঝা কোমর ভেঙ্গে দেয় তেমনি । মস্করা করে কোনো লাভ নেই শুধু তাহলে মার-ই খেতে হবে ।

N
১৮ জুন ২০২১, শুক্রবার, ৬:৪১

"গাজার ইরান সমর্থিত গোষ্ঠী হামাস।" সম্পাদকের কাছে এর ব্যাখ্যা চাই। কারণ মুসলিম হিসেবে মোটামুটি সবাই আমরা হামাসকে সমর্থন করি প্রতিরোধ আন্দোলনের জন্য। তারা আবার ইরান সমর্থিত কেমনে? আগে তো তারাই ছিল। তাহলে এখন কেন ইরান সমর্থিত তত্ত্ব আনা হচ্ছে? ইরানের সমর্থন অবশ্যই আছে কারণ অন্য মুসলিম দেশগুলোর সরকারের মাঝা ভাংগা। তাই বলে তাদের ইরান সমর্থিত বলার কোন কারণ নেই। একজন সাংবাদিকদের কাছ থেকে সাধারণ মানুষ অনেক কিছু আশা করে।

অন্যান্য খবর