× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩০ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ১৯ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

নেটদুনিয়ায় সালমান-ঐশ্বরিয়ার প্রেম চর্চা

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক
১৯ জুন ২০২১, শনিবার

২২ বছর পূর্ণ করল সঞ্জয় লীলা ভন্সালী পরিচালিত ‘হম দিল দে চুকে সনম’। পেশাগত জীবনের গোড়ার দিকের সফল ছবিকে নিয়ে স্মৃতিমেদুর সালমান। গত শুক্রবার টুইটারে পরিচালকের সঙ্গে একটি ছবি দিয়েছেন অভিনেতা। সঙ্গে লিখেছেন, ‘হম দিল দে চুকে সনম ২২ বছর পার করে ফেলল। এই পোস্টে ছবির সহ অভিনেতা অজয় দেবগণ এবং সঞ্জয়ের প্রযোজনা সংস্থাকেও ট্যাগ করলেন সালমান। এত দূর পর্যন্ত সবটাই ঠিকঠাক ছিল। তবে সালমানের পোস্টে ছবির নায়িকা ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের নাম উল্লেখ না থাকায় খটকা লাগে নেটাগরিকদের। ‘রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’-এর পর সালমানের অতীতের প্রেমকে ট্রোলের নতুন খোরাক করে একের পর এক পর মন্তব্য করতে থাকে নেটাগরিকদের একাংশ।
একজন লিখেছেন, ‘ঐশ্বর্যকে কেন ট্যাগ করেননি? ছবিতে তিনিও ছিলেন।’ কেউ আবার অভিষেকের প্রসঙ্গে টেনে খোঁচা দিয়েছেন ‘ ভাইজান’-কে। লিখেছেন, ‘ঐশ্বর্যকে ট্যাগ করলে জুনিয়র বচ্চন রেগে যাবেন।’ এক নেটাগরিকের লেখায় আফসোসের সুর, ‘ওঁদের দু’জনের সন্তান হলে তারা খুব সুন্দর হত। কিন্তু সব নষ্ট হয়ে গেল।’ টুইটার ব্যবহার করেন না ঐশ্বর্য। তবে ইনস্টাগ্রামে ‘হম দিল দে চুকে সনম’-এর সঙ্গে জড়িত কিছু মুহূর্তের ছবি দিয়েছিলেন তিনিও। সঞ্জয়ের সঙ্গে একাধিক ছবি থাকলেও, কাউকেই নিজের পোস্টে আলাদা ভাবে উল্লেখ করেননি অভিনেত্রী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর