× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

দেড় মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ৬৭ জনের মৃত্যু

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জুন ১৯, ২০২১, শনিবার, ৪:৫২ অপরাহ্ন

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ৩০৫৭ জন। মৃত্যুর এ সংখ্যা গত ৪৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগে গত ২রা মে ৬৯ জনের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৪৬৬ জনে। নতুন শনাক্তসহ মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ লাখ ৪৮ হাজার ২৭ জনে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md. Abbas Uddin
১৯ জুন ২০২১, শনিবার, ৬:১৭

লকডাউন ঘোষণা মানেই জনগণ মনে করে মাস্ক পরতে হবে। তাই তারা মাস্ক পরা শুরু করে এবং করনা সংক্রমণ কমতে থাকে। আবার যখন করনা সংক্রমণ কমতে থাকে এবং মাস্ক পরার নজরদারিতে সরকার উদাসীনতা দেখায় তখন অজ্ঞ ও মুর্খ্য জনগণ মাস্ক পরা ছেড়ে দেয়। অতঃপর করনা আবার বৃদ্দি পেতে থাকে। এক্ষেত্রে করনা সংক্রমণ যতক্ষ না '০' লেভেল পর্যন্ত আসবে ততক্ষণ পর্যন্ত সকলকে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে দিতে হবে। ভ্রাম্যমাণ আদালত বাদ দিয়ে জরূরী ভিত্তিতে পুলিশকে পূর্ন ক্ষমতা দিতে হবে অজ্ঞ ও মুর্খ্য জনগণকে সোজা করার জন্য। করনা নিয়ন্ত্রণে 'মাস্ক' একটি নিয়ামক শক্তি হিসাবে যে কাজ করছে তাহা বৈজ্ঞানিকগন্বও স্বীকার করছেন।

অন্যান্য খবর