× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

পরশুরামে ডোবা থেকে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার, স্কুলশিক্ষক গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

ফেনী প্রতিনিধি
২০ জুন ২০২১, রবিবার

ফেনীর পরশুরামে ডোবা থেকে মো. ইয়াছিন (৮) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার প্রাণিসম্পদ হাসপাতাল সংলগ্ন একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইকবালের বাড়ির পাশের ডোবা থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত মো. ইয়াছিন পরশুরাম পৌর এলাকার প্রাণিসম্পদ হাসপাতাল সংলগ্ন দারুল আমান মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ছিল। লাশ উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ইকবাল হোসেন(৪৫)কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরশুরাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. খালেদ হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃত ইকবাল হোসেন পরশুরাম পৌরসভার উত্তর বাজার এলাকার মফিজ মিয়ার ছেলে সে স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। নিহত মো. ইয়াছিন কুমিল্লা জেলার লাঙ্গলকোট উপজেলার মো. ইউসুফের ছেলে। ইউসুফ পেশায় বাবুর্চি’র কাজ করেন।
কাজের সূত্রে তিনি ফেনীর পরশুরাম উপজেলার কোলাপাড়া গ্রামে প্রাণিসম্পদ হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় ভাড়া বাসায় স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে বসবাস করছেন। নিহত শিশুর বাবা ইউসুফ জানান, গত শুক্রবার সকাল থেকে ইয়াছিনের খোঁজ না পেয়ে স্বজনরা আশপাশের বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। একপর্যায়ে দুপুরে ইয়াছিনের সন্ধান চেয়ে এলাকায় মাইকিং করা হয়। সন্ধ্যায় এক ব্যক্তি শিশু ইয়াছিনের পায়ের জুতা দেখতে পেয়ে তাদের পরিবারকে খবর দেয়। এ সময় তারা প্রাণিসম্পদ হাসপাতাল সংলগ্ন শিক্ষক ইকবালের বাড়ির উত্তর পাশের ডোবায় ইয়াছিনের মরদেহ দেখতে পায়। ওসি মু. খালেদ হোসেন জানান, এ ঘটনায় নিহত শিশুর বাবা ইউসুফ বাদী হয়ে শিক্ষক ইকবাল হোসেনকে আসামি করে শুক্রবার রাতে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় পুলিশ রাতেই ইকবালকে গ্রেপ্তার করেছে। গতকাল আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর