× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

বান্দরবানে মসজিদের ইমামকে গুলি করে হত্যা, বিক্ষোভ

বাংলারজমিন

বান্দরবান প্রতিনিধি
২০ জুন ২০২১, রবিবার

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে নওমুসলিম এক মসজিদের ইমামকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের তুলা ঝিরিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর সেখানে সেনাবাহিনী ও পুলিশ সদস্যরা গিয়েছে। এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে পড়েছে। তার নাম মোহাম্মদ ওমর ফারুক (৪৫)। আগের নাম ছিল বেরণ চন্দ্র ত্রিপুরা। নিহত মৃত তয়ারাম ত্রিপুরার ছেলে। ত্রিপুরা সম্প্রদায় থেকে কয়েক বছর আগে সে মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করে ওই এলাকায় একটি অস্থায়ী মসজিদের ইমামতি দায়িত্ব পালন করছেন।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন থেকে সন্ত্রাসীরা ওই নওমুসলিম মসজিদের ইমামকে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিল। ঘটনাস্থল তুলা ঝিরিপাড়ায় গত কয়েক বছর ধরে নওমুসলিম এর কয়েকটি পরিবারসহ বেশকিছু পরিবার বসবাস করে আসছিল। তারা সেখানে টিনের ছাউনির কাঁচা ঘরের একটি অস্থায়ী মসজিদ নির্মাণ করেন। সেখানে নওমুসলিম মোহাম্মদ ওমর ফারুক মসজিদের ইমামতি করে আসছিলেন। গত শুক্রবার রাতে ৪-৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল ঘরবাড়ি ঘেরাও করে ওমর ফারুককে ঘর থেকে ডেকে এনে মসজিদের সামনে গুলি করে হত্যা করে। তবে সন্ত্রাসী দলটি কারা ছিল এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো কিছু জানা যায়নি। বান্দরবানে পুলিশ সুপার জেরিন আক্তার জানিয়েছেন, সন্ত্রাসীরা রাতে তাকে ঘর থেকে ডেকে মসজিদের সামনে গুলি করে হত্যা করে। ঘটনার পর রোয়াংছড়ি ও পার্শ্ববর্তী লংলাই সেনা ক্যাম্প থেকে সেনাবাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়েছে। এছাড়া রোয়াংছড়ি থানা থেকে পুলিশ সদস্যরা গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে রোয়াংছড়িতে নওমুসলিম এক মসজিদের ইমামকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে পাবত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ। গতকাল সকালে মুক্তমঞ্চের সামনে এক ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর