× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

রংপুরে ঐতিহ্য হারাচ্ছে বিআরটিসি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে
২০ জুন ২০২১, রবিবার

সরকারি বিআরটিসি লক্কড়-ঝক্কড় মার্কা বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়সহ শ্রমিকদের দুর্ব্যবহারে অতিষ্ঠ যাত্রীরা।  স্বাস্থ্যবিধি মানছে না, অতিরিক্ত যাত্রী তুলে ভাড়াও বেশি নেয়া হচ্ছে। কেউ প্রতিবাদ করলে শুরু হয় বাকবিতণ্ডা। মারমুখি হয়ে ওঠে ড্রাইভার-কন্ডাক্টরসহ স্টাফরা। অহরহ এ ঘটনা ঘটছে রংপুর বিভাগের সব জেলা শহরের বিআরটিসি বাসে। রোববার বিকালে দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা কুড়িগ্রাম-ভূরুঙ্গামারী বিআরটিসি বাস (ব-১১-০০৩৯) এক সাংবাদিক যাত্রী দু’টি ডাবল সিটের ভাড়া দিয়ে তার স্ত্রী-সন্তানসহ উঠলে বাসের চালক মজিবর, কন্ডাক্টর রবিন আপত্তি তোলে এবং অতিরিক্ত ভাড়া দাবি করে। এতে যাত্রী আপত্তি জানালে তারা দুর্ব্যবহার শুরু করে। করোনা পরিস্থিতির কারণে একজন যাত্রীর কাছ থেকে প্রায় দ্বিগুণ ভাড়া নিয়ে সীমিত যাত্রী তোলার কথা থাকলেও চালক-স্টাফরা যত্রতত্রভাবে এমনকি গাড়িতে দাঁড়িয়েও যাত্রী নেয় এবং অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে। এতে প্রায় সকল যাত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়।
নির্ধারিত সময়ে গাড়ি পৌঁছার কথা থাকলেও  শ্রমিকদের যাত্রী বাণিজ্যের কারণে তা সময়মতো পৌঁছায় না। তাদের  হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছেন যাত্রীরা। যাত্রীদের অভিযোগ সাম্প্রতিককালে কতিপয় অসাধু কর্মচারী ও শ্রমিকদের কারণে বিআরটিসি যেমন লোকসানের মুখ দেখছে তেমনি, তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে। এ ব্যাপারে কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।    

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর