× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

করোনাকালের বাজেটেও শ্রমিক-কর্মচারীদের স্বার্থ উপেক্ষিত

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে
২০ জুন ২০২১, রবিবার

মৌলভীবাজার জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভায় দেশের ইতিহাসের ৫০তম প্রস্তাবিত বাজেটে করোনাকালেও শ্রমিক-কর্মচারীদের স্বার্থে কোনো কিছুই রাখা হয়নি বলে  মন্তব্য কলেছেন বক্তারা। তারা বলেন, বৈশ্বিক মহামারি মোকাবিলায় শ্রমজীবী জনগণের জীবন ও জীবিকা রক্ষার প্রেক্ষিতে প্রস্তাবিত বাজেটে কোনো দিক নির্দেশনা নেই। গত শুক্রবার রাতে শহরের কোর্ট রোডস্থ (মনু সেতু সংলগ্ন) কার্যালয়ে রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভায় বক্তারা এ কথা বলেন। জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. সোহেল মিয়ার সভাপতিতে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রজত বিশ্বাস, মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি তারেশ চন্দ্র দাস সুমন ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহিন মিয়া প্রমুখ। সভায় বক্তারা ‘সরকারের কাছে নতুন দরিদ্রদেও পূর্ণাঙ্গ হিসাব নেই’ বলে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তার সমালোচনা করে বলেন, বিভিন্ন সংস্থার গবেষণায় উঠে এসেছে করোনাকালে গত এক বছরে নতুন করে আড়াই কোটি মানুষ দরিদ্র হয়েছেন এবং ৬২ শতাংশ শ্রমিক কাজ হারিয়েছেন। অথচ সরকার যেমন এই কর্মহীন দরিদ্র মানুষের হিসাব রাখেনি; তেমনি এই বাজেটে কর্মহীন দরিদ্র মানুষের জন্য কিছুই রাখার প্রয়োজন মনে করেনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর