× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২০ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

রেবেকাকে বুকখোলা ছবি পাঠানোর অনুরোধ করেন ইংলিশ ফুটবলের কিংবদন্তি মাইকেল ওয়েন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জুন ২০, ২০২১, রবিবার, ৩:১৩ অপরাহ্ন

ইংলিশ ফুটবলের লিজেন্ড বা কিংবদন্তি বলা হয় মাইকেল ওয়েনকে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, রিয়েল মাদ্রিদ এবং ইংল্যান্ডের হয়ে খেলেছেন স্ট্রাইকার হিসেবে। বিয়ে করেছেন। কিন্তু একজন রিয়েলিটি তারকা, বিগ ব্রাদারের সাবেক হাউজমেট রেবেকা জেন-এর (৩৬) কাছে তার নগ্ন ছবি পাঠানোর জন্য অনুনয় করেছেন। একটি দুটি নয়, রেবেকার বুকখোলা ২০টি ছবি পাঠাতে অনুরোধ করেন তিনি, যাতে এসব ছবি দেখে তিনি পছন্দের ছবি বাছাই করতে পারেন। এসব কথা প্রকাশ হয়েছে বৃটিশ মিডিয়ায়। এতে বলা হয়েছে মাইকেল ওয়েনের বয়স এখন ৪১ বছর। রেবেকাকে তিনি বুকখোলা যেসব ছবি পাঠানোর অনুরোধ করে ম্যাসেজ পাঠিয়েছেন, তাতে আছে রগরগে সব বার্তা।
এসব নিয়ে নিজেই নিজের জীবন এবং বিয়ে সম্পর্কে লিখেছেন আত্মজীবনী।

বেশ কিছু টিভির বিজ্ঞাপনেও তিনি হাজির হয়েছেন। ভক্তদের কাছে তার আছে পরিচ্ছন্ন ইমেজ। কিন্তু দুই সন্তানের মা রেবেকার সঙ্গে তার রগরগে সম্পর্কের বিষয়টি তার ভক্তদের মনকে নিশ্চয় আন্দোলিত করবে। মাইকেল ওয়েন চার সন্তানের পিতা। তিনি রেবেকাকে যেসব অনুরোধ করেছেন তার মধ্যে রয়েছে, আমাকে তোমার নগ্ন ছবি পাঠাও। এমন ছবি যাতে কোনো কিছু কল্পনা করতে না হয়। এ ছাড়া রেবেকাকে তিনি বলেছেন, তার একটি ছবি তিনি ৬৫ বার দেখেছেন। তারা সাক্ষাতের বিষয়েও কথা বলেছেন। রেবেকার বুকের গঠন দেখে তা প্রকৃত কিনা তা জানতে চেয়েছেন।

উল্লেখ্য, রেবেকারে ১৮ই মার্চ থেকে অনুসরণ করা শুরু করেন মাইকেল ওয়েন। ২০১৭ সালের বিগ ব্রাদার প্রোগ্রামে অংশ নিয়েছিলেন রেবেকা। পাশাপাশি একটি লাভচিট গোয়েন্দা বিষয়ক এজেন্সিতে কাজ নিয়েছিলেন। আইটিভির ‘দিস মর্নিং’ অনুষ্ঠানের একজন নিয়মিত অতিথি ছিলেন। পরিচিত হওয়ার পর তাদের মধ্যে নিয়মিত বার্তা বিনিময় হতো। রেবেকার প্রিয় খেলোয়াড়দের মধ্যে শৈশবকাল থেকেই ছিলেন মাইকেল ওয়েন। তাই তার সঙ্গে যোগাযোগ হওয়াতে তিনি থ্রিলড মনে করতে থাকেন। কিন্তু এই যোগাযোগ অল্প সময়ের মধ্যে যৌনতায় রূপ নেয়। বিশেষ করে এপ্রিলে তা বেশি। বাসা থেকে দূরে এক সফরে যাওয়ার সময় তিনি রেবেকার কাছে আরো ছবি চেয়ে ম্যাসেজ পাঠান। এতে মাইকেল ওয়েন লিখেছেন, এরপর আগুন জ্বালিয়ে দাও। আমি লম্বা সফরে লন্ডন যাচ্ছি। আমার কিছু করা দরকার। এমন কিছু দাও, যাতে কোনো কিছু কল্পনা করতে না হয়। আরেক ম্যাসেজে তিনি লিখেছেন, নিশ্চয় ছবিগুলো তুমি সেভ করে রেখেছ। আমি এই ডজন ডজন ছবির ভিতর বিচার করবো ভাবছি। এরপরের বার্তাটি আরো খারাপ। এতে শরীরের বিভিন্ন অংশ দেখাতে অনুরোধ করা হয়।

আরেকটি চ্যাটিংয়ের সময়  রেবেকাকে মাইকেল ওয়েন বলেন যে, পরিবারের সদস্যদের নিয়ে তিনি লাইঞ্জে বসে আছেন। এরপরই তাকে গোসল করার দৃশ্য সম্বলিত একটি ছবি পাঠান রেবেকা। উল্লেখ্য, শৈশবের প্রেমিকা লুইস বোনসালকে ২০০৫ সালের জুনে বিয়ে করেছেন মাইকেল ওয়েন। স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের ছবি তিনি মাঝেমাঝে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করতেন। আত্মজীবনীতে তিনি লিখেছেন, ফুটবল থেকে অবসরে যাওয়ার পর ২০১৪ সালে স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের দিকে অগ্রসর হন। কিন্তু নিজের লেখা আত্মজীবনী ‘রিবুট- মাই লাইফ, মাই টাইম’-এ তিনি বলেছেন, তিনি এবং লুইস বিবাহ বিষয়ক কাউন্সেলিংয়ের পর পাল্টে যান তিনি। মাইকেল ওয়েন লিখেছেন, ২০১৯ সালে লুইসের সঙ্গে আমার বিচ্ছেদের মধ্য দিয়ে জীবন পাল্টে যায়। আমি জানি, আমাকে যারা জানেন, তারা সবাই বলবেন, আমি এক ভিন্ন মানুষ।

উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলে আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে চমৎকার এক গোল করার কারণে ইংল্যান্ডের সুপারস্টার হয়ে ওঠেন মাইকেল ওয়েন। নিজের দেশের হয়ে ৮৯টি গেমসে তিনি গোল করেছেন ৪০টি। তারপরও খেলাধুলার একজন পণ্ডিত হিসেবে নিজে এখনও উচ্চ মাত্রার এক মান ধরে রেখেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর