× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২০ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

ইরানের নতুন কট্টরপন্থী প্রেসিডেন্টের জয় নিয়ে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জুন ২০, ২০২১, রবিবার, ৫:২৭ অপরাহ্ন

ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভূমিধস জয় পেয়েছে কট্টরপন্থী ইব্রাহিম রাইসি। তার জয় নিয়ে এরইমধ্যে বিশ্বনেতারা তাদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। কেউ কেউ তাকে স্বাগত জানালেও, উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন অনেকে। এবারের নির্বাচনে বেশিরভাগ ভোটারই ভোট দেননি। সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আলী খামেনি বেশিরভাগ প্রার্থীকেই নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, এ কারণেই মাত্র ৪৮.৮ শতাংশ ভোট পড়েছে নির্বাচনে। এরমধ্যে প্রায় ৬২ ভাগ ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন রাইসি। আগামি আগস্ট মাসে তিনি ক্ষমতা হাতে পাবেন।
এরইমধ্যে তার কাছে হার মেনে নিয়ে তাকে স্বাগত জানিয়েছে বিরোধী প্রার্থীরা। বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি নিজেও রাইসিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আগামি ৪৫ দিন আমরা নতুন প্রেসিডেন্টকে পুরোপুরি সাহায্য করবো।

ইরানের এই নির্বাচন নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি জানিয়েছে, ইরানের মানুষ 'অবাধ ও সুষ্ঠু' কোনো নির্বাচনে অংশ নিতে পারেনি। তবে রাশিয়া রাইসিকে অভিনন্দ জানিয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আশা প্রকাশ করে বলেন, দুই দেশের মধ্যে থাকা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সামনের দিনগুলোতে আরো এগিয়ে যাবে।

এদিকে রাইসিকে ইরানের ইতিহাসের সবথেকে কট্টরপন্থী প্রেসিডেন্ট বলে আখ্যায়িত করেছে ইসরাইল। ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিওর হাইয়াত বলেন, 'তেহরানের কষাই' ইব্রাহিম রাইসি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সরাসরি নিন্দার মুখে পরেছিলেন। ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষকে বিচারবহির্ভুতভাবে হত্যার পেছনে তার হাত রয়েছে। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে উদ্বেগ জানানোর আহবানও জানিয়েছে ইসরাইল।

বিশ্বজুড়ে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচসহ একাধিক মানবাধিকার সংস্থা রাইসির বিজয় নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। অ্যামনেস্টির মহাসচিব অ্যাগনেস ক্যালামার্ড বলেন, মানবতাবিরোধী অপরাধের যে অভিযোগ রাইসির বিরুদ্ধে রয়েছে তার তদন্ত হওয়া উচিত। যেখানে হত্যার দায়ে তার বিরুদ্ধে তদন্ত হওয়া প্রয়োজন ছিল সেখানে তাকে প্রেসিডেন্ট বানানো হয়েছে। অপরাধ করে পার পেয়ে যাওয়ার ইরানি সংস্কৃতির প্রকাশ এটি। অতীত ও বর্তমানে রাইসি যেসব অপরাধ করেছেন, আন্তর্জাতিক আইনের অধীনে তার তদন্তের আহবান জানাচ্ছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।
হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক সহকারী পরিচালক মাইকেল পেইজ বলেন, নিপীড়ন ও অন্যায্য নির্বাচনের মধ্য দিয়ে প্রেসিডেন্ট হয়েছেন রাইসি। ইরানের সাম্প্রতিক ইতিহাসের জঘন্য সব অপরাধের জন্য দায়ি রাইসি। এর জন্য তাকে তদন্তের আওতায় আনা উচিত এবং তাকে অভিযুক্ত করা উচিত।

তবে ইব্রাহিম রাইসির জয়ের পর তাকে অভিনন্দন জানিয়ে ইরানের সঙ্গে স¤পর্কোন্নয়নের আশা প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, আঞ্চলিক শান্তি, প্রগতি ও সমৃদ্ধি নিশ্চিতে রাইসির অধীনে ইরানের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে তিনি কাজ করতে চান। রাইসিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েফ এরদোগানও। তিনি বলেন, রাইসির শাসনকালে ইরানের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হবে। আমি রাইসির সঙ্গে কাজ করার জন্য প্রস্তুত।

রাইসিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদও। নিজ দেশেও কদিন আগেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন আসাদ। তিনি রাইসির অধীনে ইরানের সঙ্গে কাজ করে যাওয়ার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। রাইসিকে অভিনন্দন জানিয়েছে ইরাক, ইয়েমেন, কাতার, কুয়েত ও সংযুক্ত আরব আমিরাতও। অভিনন্দন জানিয়েছে ফিলিস্তিনের ইরানপন্থী সংগঠন হামাসও। গাজায় হামাসের মুখপাত্র হাজেম কাসেম বলেন, গণতান্ত্রিক প্রকৃয়ায় আয়োজিত নির্বাচনে জয় পাওয়ায় ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আমরা ইরানের উন্নয়ন ও বিকাশ কামনা করি। ইরান সবসময়ই ফিলিস্তিনি প্রতিরোধের সত্যিকারের সমর্থক ছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
MOHAMMAD SHAHIDUR RA
২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৫:৪৯

ইজরাইল হল নর পষূ ওরা আর কি মন্তব্য করবে আর এমেরিকা ওরা তো এক চোখা দাজ্জাল

অন্যান্য খবর