× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

সেনাবাহিনীর বিভিন্ন স্থাপনা উদ্বোধন করলেন সেনাপ্রধান

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
২১ জুন ২০২১, সোমবার

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ নবগঠিত জাজিরা সেনানিবাসে ২০টি স্থাপনাসহ ঢাকা, বগুড়া, যশোর ও রংপুর সেনানিবাসে অন্যান্য পদবির সৈনিক এবং ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীদের জন্য ৪টি বহুতল (প্রতিটি বিল্ডিং এ ১১২টি ফ্ল্যাট) বিশিষ্ট আবাসিক কোয়ার্টার (সেনানীড়) শুভ উদ্বোধন করেন।
গতকাল সাভার সেনানিবাস হতে ভিডিও টেলি-কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন। এই স্থাপনাসমূহ উদ্বোধনের ফলে জাজিরা সেনানিবাসে ৭টি ইউনিটের অফিস ভবন, সৈনিক ব্যারাক এবং ভারী সমরাস্ত্রের গ্যারাজসহ অফিসার ও জুনিয়র কমিশন্ড অফিসারদের আবাসিক কোয়ার্টার নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলো। এছাড়াও ঢাকা, বগুড়া, যশোর ও রংপুর সেনানিবাসে অন্যান্য পদবির সৈনিক এবং ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীদের আবাসিক কোয়ার্টার সংক্রান্ত সমস্যা বহুলাংশে নিরসন হলো। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সেনাবাহিনীর সকল পদবির সদস্যদের জন্য গৃহীত বিভিন্ন কল্যাণমূলক পদক্ষেপসমূহ তুলে ধরে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। বক্তব্যের শুরুতেই তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীরশ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের। সেইসঙ্গে তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামে এবং জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে দায়িত্ব পালনকালে শাহাদতবরণকারী সকল সেনাসদস্যের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতঃ তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় দেশের সার্বিক অগ্রগতির সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আধুনিকায়ন, সম্প্রসারণ এবং কল্যাণমূলক বিভিন্ন পদক্ষেপ অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন হচ্ছে।
যে কারণে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আজ একটি পেশাদার বাহিনী হিসেবে দেশের মানুষের আস্থা অর্জনসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও সম্মানজনক অবস্থানে পৌঁছেছে। ভবিষ্যতেও সেনাবাহিনীর এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। উদ্বোধনকৃত সকল স্থাপনাসমূহের নির্মাণকাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট এরিয়া কমান্ডারসহ সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। অনুষ্ঠানে ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাসহ সকল পদবির সামরিক ও অসামরিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর