× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৬ জুলাই ২০২১, সোমবার, ১৫ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

শেখ হাসিনাকে মোদির চিঠি, মহামারি কাটিয়ে ওঠার দৃঢ় আশাবাদ

অনলাইন

কূটনৈতিক রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জুন ২১, ২০২১, সোমবার, ৮:৫৬ পূর্বাহ্ন

মানবজাতি খুব শিগগিরই চলমান মহামারি কাটিয়ে উঠবে- এমন দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি লিখেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আন্তর্জাতিক ইয়োগা দিবস (২১শে জুন)কে সামনে রেখে ২৫ শে মে-২০২১ ডেটলাইনে ইংরেজিতে লেখা চিঠিটির একটি বঙ্গানুবাদ রোববার রাতে গণমাধ্যমে শেয়ার করেছে ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশন। চিঠিতে মোদি লিখেন- ২০১৪ সালে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ কর্তৃক ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসেবে ঘোষণার অভূতপূর্ব সাড়া যোগব্যায়ামের সর্বজনীন আবেদনের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে যা সমস্ত বাধা অতিক্রম করে যায়। তখন থেকেই বিশ্বব্যাপী সাড়ম্বরে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত হয়ে আসছে।
আর কয়েক সপ্তাহ পরই (আজ, সোমবার) বিশ্ব ৭ম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন করতে যাচ্ছে। বিগত বছরের মতো এবছরও কোভিড-১৯ মহামারির প্রকোপের মধ্যেই আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত হবে।
এই অবিস্মরণীয় প্রতিকূলতার মধ্যেও আমাদের কোভিড-১৯ যোদ্ধারা উল্লেখযোগ্যভাবে এই মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। মহামারির হুমকির মধ্যেও গত আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের পর থেকে বেশ কিছু ইতিবাচক ঘটনা ঘটেছে।
বিভিন্ন চিকিৎসা পদ্ধতি ও ভাইরাস বিষয়ক বৈজ্ঞানিক গবেষণার পাশাপাশি আমাদের জনগণকে রক্ষার জন্য এখন একাধিক টিকাও রয়েছে আমাদের কাছে।
ভারতসহ বিভিন্ন দেশে টিকাদান কর্মসূচি চলছে। আমার বিশ্বাস মানবজাতি খুব শিগগিরই এই মহামারি কাটিয়ে উঠবে। মোদি আরও লিখেন- আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য “সুস্থতার জন্য যোগ”- যা বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক।
শরীরের পাশাপাশি যোগব্যায়াম মনের জন্যও বেশ উপকারী। সকল ধরণের সাবধানতা সত্ত্বেও একজন মানুষ কোভিড-১৯ আক্রান্ত হতে পারেন। কিন্তু একটি শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা একে মোকাবিলার ক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারে। যোগব্যায়াম আমাদের সেই প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরিতে সাহায্য করে, যেমনঃ- শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়ামের ফলে ফুসফুসের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়। একই সময়ে, সাড়া বিশ্বেই কোটি কোটি মানুষ মাসের পর মাস ঘরে থাকতে বাধ্য হয়েছেন। এর ফলে তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপরও বেশ প্রভাব পড়েছে। নিয়মিত যোগাভ্যাস তাদের এই প্রভাব কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে।
যোগের একটি সহজাত শক্তি রয়েছে মানুষকে যুক্ত করার। যোগব্যায়াম সম্প্রদায়, রোগ প্রতিরোধ এবং ঐক্য এই তিনের জন্যই উপকারী। আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য সাড়া বিশ্বের মানুষের সুস্বাস্থ্য ও সুস্থতার প্রতি উদ্বেগকেই প্রতিফলিত করে। এটি এমন একটি উদ্যোগ যা মানুষের শারিরীক সক্ষমতার পাশাপাশি সুস্থতার প্রতিও গুরুত্ব দেয়।
বাংলাদেশে সফলভাবে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন প্রসঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী লিখেন- আপনাদের সহযোগিতার জন্য প্রত্যেককে আমি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই। গত কয়েক বছরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে যোগ দিবস পালনের জন্য বাংলাদেশী ভাই ও বোনেদের ব্যাপক অংশগ্রহণ দেখে আমি অত্যন্ত আপ্লুত হয়েছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, সামনের বছরগুলিতেও আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালনে আপনার সরকারের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। চিঠির সমাপনীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে ভারতের সরকার প্রধান লিখেন- আমি আপনি, আপনার পরিবার ও দেশের জনগণের সুস্থতা ও সুস্বাস্থ্য কামনা করি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Zakiul Islam
২১ জুন ২০২১, সোমবার, ১১:০৫

অগ্রিম টাকা নিয়ে টীকা দেন না । আর চিঠি লিখে সম্পর্ক ঝালায় করেন । টাকা নিয়েছেন টীকা গুলু দেন । তারপর চিথি লিখে ক্ষমা চান , ভুল স্বীকার করেন । শুধু কথায় চিড়ে ভিজবেনা । আসামের ভারতীয় মুসলিম নাগরিক দের নিয়ে ইঁদুর বিড়াল খেলা বন্ধ করুণ । বাংলাদেশে পাঠানোর হীন ষড়যন্ত্র পরিহার করুন । পার্বত্য চট্ট গ্রামের সন্ত্রাসীদের মদদ দেয়া বন্ধ করুন ।চিঠি দেয়া লাগবেনা , বন্ধুত্ব আপনা আপনি হালনাগাদ হয়ে যাবে ।

কাজি
২০ জুন ২০২১, রবিবার, ৮:৩৬

ফালতু গীত গেয়ে চিঠি। ঘর সামলাতে যে অক্ষম তার চুপ থাকাই উত্তম।

অন্যান্য খবর