× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৫ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২১ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

হাতিয়ায় ঘর পেলো ১৯৮ ভূমিহীন পরিবার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে
২১ জুন ২০২১, সোমবার

মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধামন্ত্রীর উপহার ঘর ও জমি পেল আরো ১৯৮টি পরিবার। রোববার সকালে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার অসহায় এসব পরিবারের মাঝে জমির দলিল ও ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দলিল ও ঘরের চাবি হস্তান্তর কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এই উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ আলী। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো: রবিউল হাসান, উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুব মোর্শেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মহি উদ্দিন আহম্মেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন পেশার প্রায় শতাধিক প্রতিনিধি ও উপকার ভোগী পরিবারের সদস্যরা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে দ্বিতীয় ধাপে হাতিয়ায় ১৯৮টি ঘর নির্মাণ করা হয়। এর মধ্যে উপজেলার জাহাজমারা ইউনিয়নে ১০৭, সোনাদিয়া ২৬ ও চরকিং ইউনিয়নে ৬৫টি।
এর আগে জানুয়ারি মাসে এই উপজেলায় আরো ৫০টি ঘর নির্মাণ করা হয়।

প্রতিটি ঘরের নির্মাণের জন্য ব্যয় ধরা হয় ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। আধাপাকা প্রতিটি ঘরে রাখা হয়েছে দুটি শয়নকক্ষ, একটি রান্না ঘর, একটি শৌচাগার ও একটি বারান্দা। প্রতি ১০টি পরিবারে জন্য স্থাপন করা হয়েছে একটি করে গভীর নলকূপ। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপহার এসব ঘরের জন্য উপকার ভোগী নির্ণয়ে আমরা খুবই গুরুত্ব দিচ্ছি। প্রতিটি পরিবার নির্ণয়ে আমাদের সহকারী কমিশনার ভূমি মাঠে গিয়ে তদন্ত করেন। আমরা দেখে দেখে অসহায়, দুস্থ একেবারে নিঃস্ব খোঁজে বের করার চেষ্টা করছি। দ্বিতীয় ধাপের ১৯৮টি পরিবারকে আজ আনুষ্ঠানিকভাবে ঘরের চাবি জমির কাগজ পত্র বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর