× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৮ জুলাই ২০২১, বুধবার, ১৭ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

শ্রীলঙ্কায় আবার মুসলিমদের অবমাননার অভিযোগ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জুন ২১, ২০২১, সোমবার, ১:২০ অপরাহ্ন

শ্রীলঙ্কায় আবারও মুসলিমদেরকে অবমাননার অভিযোগ উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায়, সশস্ত্র সেনা সদস্যরা বেসামরিক মুসলিমদেরকে লকডাউন আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে শাস্তি দিচ্ছে। তাদেরকে রাস্তার ওপর হাঁটুগেঁড়ে বসতে বাধ্য করেছে। এরপর তাদের হাত উপরের দিকে তুলে রাখতে বাধ্য করেছে। আসলে ওই মুসলিমরা দুটি রেস্তোরাঁয় গিয়েছিলেন খাবার কিনতে। এ ঘটনা ঘটেছে রাজধানী কলম্বো থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার পূর্বে ইরাভুর শহরে।

এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা মনে করছেন, মুসলিমদেরকে অবমাননা করতে এবং তাদেরকে অপদস্ত করতে এসব করা হয়েছে।
বিশেষ করে কর্মকর্তারা যখন স্বীকার করেছেন যে, সেনা সদস্যদেরকে এমন শাস্তি দেয়ার জন্য কোনো ক্ষমতা দেয়া হয়নি, তখন ক্ষোভ আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা।

উদ্ভূত ঘটনার প্রেক্ষিতে সেনাবাহিনী রোববার একটি বিবৃতি দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ইরাভুর এলাকায় এমন হয়রানির কিছু সুনির্দিষ্ট ছবি ভাইরাল হওয়ার পর মিলিটারি পুলিশ এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে। এ অভিযোগে এরই মধ্যে অফিসার ইন চার্জকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। যেসব সেনা সদস্য এতে জড়িত তাদেরকে শহর ছেড়ে যেতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেনাবাহিনীর যেসব সদস্য এমন আচরণ করেছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোরভাবে শৃংখলা ভঙের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, তৃতীয় দফা করোনা সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে শ্রীলঙ্কা এক মাস ধরে লকডাউনে রয়েছে। সেখানে মধ্য এপ্রিলে করোনায় মৃত্যু শুরু হয়। মৃতের সংখ্যা চারগুন বৃদ্ধি পেয়েছে। এমনিতেই ২০০৯ সালে শেষ হওয়া কয়েক দশকের তামিল বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে দেশটির সেনাবাহিনী যুদ্ধাপরাধ করেছে বলে অভিযোগ আছে। এবার করোনা ভাইরাস সংক্রমণে বিধিনিষেধ পালনে পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্তৃপক্ষকে সহায়তার জন্য মোতায়েন করা হয়েছে সেনা বাহিনী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Professor Dr.Mohamme
২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৯:৩১

শুধু স্রিলাঙ্কা, বার্মা বা চীনের কথা নয়। বরং এই ভ্রষ্টতা থেকে কেউই মুসলমানদের বাঁচাতে পারছেনা । আমাদের প্রতিবেশী ভারতও এই জাতিও কদর্য এবং নৃশংসতা থেকে কোন ভাবে পিছিয়ে নেই। আজকের খবরে দেখা যাচছে, ভারতের ত্রিপুরায় গরু চুরির অভিযোগে জায়েদ হুসাইন (২৮), বিলাল মিয়া (৩০) ও সাইফুল ইসলাম (১৮) নামের তিন মুসলিমকে হত্যা করেছে একদল হিন্দু। রোববার ত্রিপুরার খোয়াই জেলায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। মাত্র দুদিন আগে পার্বত্য চট্টগ্রামে নিহত নও মুসলিম এবং ইমাম ওমর ফারুকের হত্যা প্রমান করে গোটা ধরিত্রীতে এরা যেন বড় অসহায় । আল্লাহ মালিক সকল মুসলমানদের জন্য দয়া এবং ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করুন । আমীন

Emon
২১ জুন ২০২১, সোমবার, ৩:৩৮

শ্রীলঙ্কা ও বার্মা স্বাধীন হলেও চীন দ্বারা প্রভাবিত .পৃথীবিতে ভিন্ন ধর্মালমবীদের নির্যাতনকারী অন্যতম চীনের পরেই এই দেশ দুটির অবস্তান।

অন্যান্য খবর