× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

গাইবান্ধায় ধর্ষণের শিকার নাবালিকা রংপুরে মানববন্ধন

বাংলারজমিন

স্টাফ, রিপোর্টার, রংপুর থেকে
২৩ জুন ২০২১, বুধবার

বিচারের নামে বারবার ধর্ষণের শিকার হয়েছেন গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের এক হরিজন নাবালিকা মেয়ে। এ  ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ হরিজন সম্প্রদায় মঙ্গলবার নগরীর কাচারী বাজারে মানববন্ধন সমাবেশ করে করেছেন। এ সময় তারা অবিলম্বে ধর্ষণকারীদের গ্রেপ্তারসহ সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করেন। হরিজন অধিকার আদায় সংগঠনের উদ্যোগে এ মানববন্ধন সমাবেশে সুরেশ বাসফোরের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাজু বাসফোর, জয় বাসফোর, উপদেষ্টা শবরন বাসফোরসহ অন্যরা। বক্তারা বলেন, গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জে সর্বানন্দ গ্রামে হরিজন সম্প্রদায়ের এক পরিবার বসবাস করে আসছে। গত দেড় মাস আগে গ্রামের প্রভাবশালীর ছেলে মোতালেব (২৮) বিয়ে করার কথা বলে হরিজন সম্প্রদায়ের ওই নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ ও নির্যাতন চালিয়ে অসুস্থ অবস্থায় তাকে বাড়ির রাস্তার পাশে ফেলে যায়। পরে সেখানে সাবেক ইউপি মেম্বার হায়দার ও মতিন বিচারের কথা বলে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। মেয়েটিকে উদ্ধারের জন্য গেলে হায়দার আবার জোরপূর্বক বিচারের কথা বলে মতিনের কাছে মেয়েটিকে পাঠায়।
এরপর মতিন ও এক সবজি বিক্রেতা বিচারের কথা বলে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এভাবে বিচারের নামে টাল বাহানা করে ওই নাবালিকা মেয়েটির উপর যৌন নির্যাতন করে। এ ঘটনায় স্থানীয় এক সাংবাদিক পুলিশ সুপারকে ফোন করে বিষয়টি জানালে তিনি মেয়েটিকে উদ্ধারসহ চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠান। বর্তমানে ধর্ষণের শিকার ওই মেয়েটি সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকারও ওই মেয়ের মা সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলা করলে এখনও আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এ ব্যাপারে গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান বলেন, থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর