× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১৩ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

নোয়াখালীতে সাবেক স্বামী মাথা ফাটিয়ে দিলো ডিভোর্সি স্ত্রীর

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে
২৩ জুন ২০২১, বুধবার

নোয়াখালী সুবর্ণচরে পারিবারিক বিরোধের জেরে টর্চলাইট দিয়ে পিটিয়ে শারমিন আক্তার (২২) নামে এক নারীর মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে তার সাবেক স্বামী। গত সোমবার রাতে উপজেলার চরজুবিলী ইউনিয়নের পশ্চিম চরজব্বার গ্রামের দেলোয়ারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ আহতের বড় ভাই সাজ্জাদ ফোন করলে চরজব্বার থানা পুলিশ ওই নারীকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সাবেক স্বামী জহিরুল ইসলাম (৩৫)কে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত জহিরুল ইসলাম চরজুবিলী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে। ভুক্তভোগীর বাবা জানান, ২০১৪ সালে চরজুবিলী ইউনিয়নের দক্ষিণ চরবাগ্যা গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমান ওরফে মোস্তফা সর্দারের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৩৫) সঙ্গে তার মেয়ের বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে প্রায় যৌতুকের জন্য শারমিনকে মারধর করতো। নির্যাতনের কারণে ১ বছর আগে শারমিন জহিরকে ডিভোর্স দিয়ে দেন।
গত ৪ মাস আগে সালিশ বৈঠকে জহিরুলের সঙ্গে শারমিনের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। সালিশ বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শারমিনের ঘরে জন্ম নেয়া ২ সন্তান ফারিয়া ইসলাম (৬) এবং সাইদুল ইসলাম (৪)কে জহিরুল নিয়ে যায়। পরে ৩ মাস আগে জহির পুনরায় বিয়ে করেন। কিছুদিন ধরে জহিরের নতুন স্ত্রী পারুল বেগম প্রায় সাইদুলকে মারধর করে। শারমিনের বাড়ির সামনে সাবেক স্বামীর ঘর হওয়ায় শারমিন তার শিশু ছেলের ওপর নির্যাতন দেখতে পায়। গত সোমবার সন্ধ্যায় পুনরায় সৎমা পারুল সাইদুলকে মারধর করলে সাইদুলের চিৎকার শুনে শারমিন বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে বিষয়টি দেখেন। একপর্যায়ে পারুল ঘরের দরজা আটকে দেয়। কিছুক্ষণ পর জহির এসে ঘরে প্রবেশ করে শারমিনকে টর্চলাইট দিয়ে  এলোপাতাড়ি পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেয়। এ ব্যাপারে চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল হক মানবজমিনকে বলেন, শারমিনের বাবা লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। ওই মামলায় আটককৃত আসামিকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে গতকাল আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর