× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার , ৫ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ সফর ১৪৪৩ হিঃ
রাজশাহীতে ২২ গরু নিলামে

নিঃস্ব মালিকদের বাড়িতে কান্নার রোল

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার

খামারে পালনকৃত গরু বেশি লাভের আশায় কৃষক সাদিকুলসহ তার কয়েকজন সহযোগী নিয়ে যাচ্ছিলেন চট্টগ্রামে। পথিমধ্যে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার রাজাবাড়ী চেকপোস্টে ট্রাক থামিয়ে জব্দ করা হয় ২২টি গরু। এরপর গরুগুলোকে ভারতীয় বলে গত বৃহস্পতিবার নিলামে বিক্রি করে দেয় কাস্টমস দপ্তর। ফলে গত একবছর ধরে পালনকৃত গরুগুলোকে হারিয়ে এখন নিঃস্ব চাঁপাই নবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার কৃষক সাদিকুল ইসলামসহ কয়েকজন। গতকাল গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন কৃষক সাদিকুল। তিনি বলেন, গরুগুলো রেখে আসার পর থেকে খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দিয়ে বউ-বাচ্চা সবাই কান্নাকাটি করছে। যারা গরুর ট্রাক আটকায় তখন তারা বলেছিলো- টাকা দিয়ে যান, ট্রাক ছেড়ে দিবো। তখন সাদিকুল তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘কিসের টাকা দিবো, আমি মেম্বার মানুষ।
তারপর তারা আমাকে হ্যান্ডকাপ লাগানোর হুমকি দিয়ে গরুগুলো নিয়ে কাস্টমস অফিসের দিকে রওয়ানা দেয়। আমি বৈধ কাগজপত্র নিয়ে বিজিবি’র সিইও সাহেবের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলাম, কিন্তু করোনার অজুহাত দেখিয়ে বিজিবি’র গেটে আমাকে আটকিয়ে দেয়া হলো। শেষপর্যন্ত বিভাগীয় কমিশনারের কাছে ন্যায় বিচারের আশায় একটি দরখাস্ত দিয়ে এসেছি। এ সময় সাদিকুল বলেন, ‘২১ লাখ টাকার গরু শুনেছি ৮ লাখ টাকায় বিক্রি করে দিয়েছে।’ বার বার মূর্ছা গিয়ে শুধু একটা কথাই বলছেন, ‘আমরা গরীব মানুষ, গরুগুলো না পেলে মরে যাবো ভাই।’
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, চাঁপাই নবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে পালন করা এই ২২টি গরু চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়ার সময় রাজশাহীর গোদাগাড়ী চেকপোস্টে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগের যৌথ দল গত বুধবার আটক করে। পরে বৃহস্পতিবার ভারতীয় গরু বলে রাজশাহী শহরে নিয়ে গিয়ে পানির দামে মাত্র ৯ লাখ ৩৫ হাজার টাকায় নিলামে বিক্রি করে দেয় কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগ। গরুগুলোর আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ২১ লাখ টাকা দাবি করেন গরুর মালিকরা। অভিযোগ উঠেছে, রাজশাহী মহানগরীর রুবেল বাহিনীর সঙ্গে যোগসাজশ করে গরুগুলো পানির দামে বিক্রি করা হয়। রাজশাহী নগরীর দাশপুকুর এলাকায় সিটি বাইপাশের উত্তর পাশে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগের গুদামে গরুগুলো নিলাম করা হয়। এদিকে ভুক্তভোগী কৃষকদের দাবি, গরুগুলো তাদের বাড়িতে পোষা। গরু মালিকদের বাড়ি গোমস্তাপুর উপজেলার বাঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের বেগুনবাড়ি ও ব্রজনাথপুর গ্রামে। গরু মালিকদের মধ্যে বেগুনবাড়ি গ্রামের মো. রহিমের পাঁচটি, মো. মইদুলের চারটি, মো. সেলিমের আটটি, ব্রজনাথপুরের সাদিকুল ইসলামের আটটি গরু ছিল। গরুগুলো চাঁপাই নবাবগঞ্জ থেকে চট্টগ্রামে নেয়ার জন্য বাঙ্গাবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সাদেরুল ইসলাম একটি প্রত্যয়নপত্র দিয়েছিলেন। ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘গরুগুলো বাড়িতে পোষা। এটা ভারতীয় গরু নয়। কিন্তু তারা কীভাবে আটক করে নিলাম দিয়েছে?’
ইউপি সদস্য সাদিকুল ইসলাম দাবি করেন, বুধবার দুপুরে গোমস্তাপুর থেকে গরুগুলো একটি ট্রাকে তুলে চট্টগ্রামে কোরবানির হাটে বিক্রির জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন। পথে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার রাজাবাড়ীহাট যৌথ চেকপোস্টে ট্রাক থামানো হয়। তখন তিনি ট্রাক থেকে নেমে নিজের পরিচয় দেন এবং জানান এগুলো ভারতীয় গরু নয়। তাদের বাড়ির পোষা গরু। পরিচয় শুনেই কাস্টমসের সদস্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। সাদিকুল তাদের প্রত্যয়নপত্র দিলে সেগুলো ছিঁড়ে ফেলা হয়। এদিকে গুদামের দায়িত্বরত কর্মকর্তা কাস্টমসের পরিদর্শক শাহরিয়ার হাসান সজীব বলেন, বিজিবি ও কাস্টমসের সদস্যরা আমাদের গুদামে গরু দেয়ার সময় বলেছেন, কোনো মালিক পাওয়া যায়নি। ট্রাক থামানো হলে ভারতীয় এসব গরু ফেলে সবাই পালিয়ে গিয়েছে। জব্দ তালিকায় বিজিবি উল্লেখ করেছে, প্রতিটি গরুর দাম আনুমানিক ৮০ হাজার টাকা। শাহরিয়ার বলেন, ‘গরুগুলোর দাম এত বেশি বলে আমরা মনে করি না। সর্বোচ্চ ৫০ হাজার হতে পারে। আমরা নিলামে ১১ লাখ টাকা চেয়েছিলাম। ৯ লাখ ৩৫ হাজার টাকা পাওয়া গেছে। এটা পর্যাপ্ত।’ তবে এ নিয়ে বিজিবি’র রাজশাহী-১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক সাব্বির আহমেদ বলেন, ‘গুরুগুলো যে ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেই ট্রাকে কোনো কাগজপত্র ছিল না। ফলে কাস্টমস এবং বিজিবি’র যৌথ দল গরুগুলো আটক করেছে। পরে কাস্টমস সেগুলো নিলাম করেছে। তারা কীভাবে নিলাম করলো সেটি তারাই ভালো বলতে পারবে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
সোহেল
১৮ জুলাই ২০২১, রবিবার, ৭:১০

আজ যদি দেশে ইসলামি শাসন ব্যবস্থা থাকতো তাহলে সরকারী কর্মচারী ও আমলাদের ৭০ভাগ চুরি ও দূর্নীতির দায়ে হাত কাটা যেতো।

শাজিদ
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৪:১০

এটি অস্বাভাবিক কিছুই নয়। যেখানে মন্ত্রী এমপিরা চুরি করে সেখানে প্রশাসনের লোকেরা ঘুমিয়ে থাকবে কিভাবে আশা করেন?

arif
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৮:৫৯

a gulo to 100% deshi garu...........

বিলকিস বানু
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৮:৪৩

গরু পড়েছিল শুয়োরদের হাতে।

নাজমুল
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৭:৪২

টাকা আরও দশ লাখ খরচ হলেও অই অফিসার কে ক্রস ফায়ার করতে হবে।।।

Sohel Rana
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৪:৪৮

মাননীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর কাছে জোড় আবেদন তদন্ত করে এই শিক্ষিত গরু চোরদের বিরুদ্ধে কঠিন শাস্তি দিন। অপরাধে জড়িতদের কাছ থেকে জরিমানা করে গরুর সঠিক মূল‍্য মালিকদের দেওয়া হোক।

খালেসুর রহমান
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৩:৩০

গরুগুলো ভারতীয় কী না তা যাচাই না করেই এতো দ্রুত কীভাবে নিলাম করা হলো। একজন সাধারণ নাগরিক হিসেব এর সঠিক বিচার চাই।

শামসুল হুদা
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২:৫৯

৫০০০০ হাজার টাকায় ভারতীয় গরু পাওয়া যায়? গরু গুলো দেখে যে কেউ বলে দিতে পারবে এইগুলো দেশি। সরকারি চাকরিজীবিরা তো দিন কে রাত আর রাত কে দিন বানাচ্ছে। এই যেমন কই দিন আগে এক শিক্ষক এর হাত ভেঙে দিয়ে বলে পরে ভেঙে গেছে।

Borno bidyan
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১:২৫

ভারতীয় গরু বিজিবি ও কাস্টমস এর কিছু দুর্নীতিপরায়ণ কর্তাদের সাথে যোগসাজশ করে পাচার হয়ে থাকে! তাঁদের সিগন্যাল ছাড়া একটি গরুও বাংলাদেশে ঢুকতে পারে না ! মাঝে মধ্যে ডিউটি পরিবর্তন জনিত কারণে ও কিছু সৎ কর্মকর্তার কারণে কিছু গরু আটক হয়ে থাকে ! এই দুর্নীতির একটাই সমাধান : 'গরু আটক হলে তা নিলামে দেয়া যাবে না ! ভারত আমাদের সরকারের পরম বন্ধু ! গরুকে তাদের দেশে মায়ের মতো মনে করে ! অতএব মাকে নিলামে না তুলে সংশ্লিষ্ট বর্ডার দিয়ে "পুশ ব্যাক" করে দিতে হবে! আর সংশ্লিষ্ট বর্ডারে দায়িত্বরত বিজিবি সদস্যকে সাসপেন্ড করতে হবে ! দেশের ভিতরে দেশের সাধারণ জনগণ হয়রানি করা কখনো সুশ্বাসনের পর্যায়ে পড়ে না !

এ, কে, এম, মহীউদ্দীন
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১১:৫৯

মানুষের সর্বনাশ করে দেওয়াই হচ্ছে আমাদের পোষা সরকারি লোকজনের প্রধান কাজ। চমৎকার একটা রাষ্ট্র হয়েছে আমাদের!

এ, কে, এম, মহীউদ্দীন
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১১:৫৯

মানুষের সর্বনাশ করে দেওয়াই হচ্ছে আমাদের পোষা সরকারি লোকজনের প্রধান কাজ। চমৎকার একটা রাষ্ট্র হয়েছে আমাদের!

z Ahmed
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১১:৫১

এ দেশে কী হচ্ছে? এটি একটি পরোক্ষ হত্যা বা দরিদ্র কৃষকদের ধ্বংস। এটিকি তিন মিলিয়ন শহীদের আত্মত্যাগের দ্বারা স্বাধীনতা !!!

MD.ABDUL BAREK
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ১১:৪৮

জুলুম করে গরু ছিনতাই সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ এবং গরুওয়ালাদের ২১ লাখ টাকা পৌছে দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

AMIR
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৯:৩৭

গরুগুলো যে ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেই ট্রাকে কোনো কাগজপত্র ছিল না। ------ট্রাকের না গরুর কাগজপত্র ছিল না? দুইটার দুই ব্যবস্থা!

Salam
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৯:২৭

দেশটা এখন মগের মুল্লুক, যে যাকে পারছে সব কিছু লুটে বিপদে ফেলছে, এটা বলে স্বাধীনদেশ, এটা স্বাধীনতা! কে স্বাধীনতা উপভোগ করছে, জনগণ? ধিক্কার ধিক্কার এমন জুলুমকারীদের।

কালাম ফয়েজী
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৭:২০

পুলিশসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ এবং গরুওয়ালাদের ২১ লাখ টাকা পৌছে দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

আকাশ
১৬ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ৬:১২

কী ভাষায় গালাগালি বা প্রতিবাদ করি জানানাই...

MIZANUR RAHMAN MOZUM
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ৬:৫৯

শুধু গান গেয়ে যান---আমাদের বলার কিছু ছিল না, চেয়ে চেয়ে শুধু দেখলাম!!!

মোঃ মনিরুজ্জামান
১৬ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ৫:৫৮

উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত করা হোক

Kazi
১৬ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ৫:৫২

মেহনত করে ও বাঁচার নিশ্চয়তা নাই, প্রশাসনের লোকের বেপরোয়া আচরণের জন্য। সরকারের উচ্চ পর্যায়ের লোক বিষয়টির সমাধান করবেন কি ? না হলে দেশে উদ্যোক্তা থাকবে না । চুরি পেশা হবে এদের পছন্দের পথ।

Mohammad Q Khan
১৭ জুলাই ২০২১, শনিবার, ২:৫৩

It is worse than killing. Only possible in a lawless country like Bangladesh. Thanks for reporting this cruelty but nothing will happen to the criminals

খোরশেদ আলম
১৬ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ১২:৩২

এই অত্যাচার এর শেষ কোথায় ????

মোহাম্মাদ নোমান
১৬ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ১১:১৪

মগের মুল্লুক!

অন্যান্য খবর