× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিঃ

বাংলাদেশ নয় মালদ্বীপকেই বেছে নিলো এএফসি

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২০ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

এশিয়ার ক্লাব ফুটবলের শীর্ষ আসর এএফসি কাপে নিজেদের ‘ডি’ গ্রুপের খেলার আয়োজক হওয়ার জন্য আবেদন করেছিল বসুন্ধরা কিংস। ভেন্যু হিসেবে বেছে নিয়েছিল সিলেট জেলা স্টেডিয়ামকে। খেলা আয়োজনের ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সবুজসংকেতও পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু বসুন্ধরাকে আয়োজক হিসেবে বেছে নেয়নি এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। বাংলাদেশ নয়, মালদ্বীপকেই আয়োজক হিসেবে বেছে নিয়েছে এশিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। গতকাল এক বিবৃতি দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করে এএফসি। দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের দলগুলোই আছে ‘ডি’ গ্রুপে, আর এই গ্রুপের ম্যাচগুলোর আয়োজক হওয়ার দৌড়ে বসুন্ধরার পাশাপাশি ছিল মালদ্বীপ ফুটবল ফেডারেশনও। মালদ্বীপের মাজিয়া স্পোর্টস ক্লাবও এই গ্রুপে আছে।
গ্রুপের প্লেুঅফে খেলবে মালদ্বীপেরই ইগলস ক্লাব। ক্লাবগুলোর পক্ষ থেকে মালদ্বীপ ফুটবল ফেডারেশন ম্যাচগুলো নিজেদের দেশে আয়োজনের প্রস্তাব দেয়। শেষ পর্যন্ত বসুন্ধরার প্রস্তাব ফিরিয়ে আয়োজক হিসেবে মালদ্বীপকেই বেছে নিয়েছে এএফপি। মালদ্বীপের মালেতেই গত মে মাসে এএফসি কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে শেষ মুহূর্তে তা বাতিল হয়ে যায়। সে সময়ে পুরোদমে প্রস্তুতি নিয়ে এএফসি কাপ খেলতে মালদ্বীপে যাওয়ার জন্য তৈরি হয়েছিল বসুন্ধরা কিংস। কিন্তু বসুন্ধরার দল বিমানবন্দরে রওনা হওয়ার আগে খবর আসে, করোনার কারণে স্থগিত করা হয়েছে টুর্নামেন্টটি। এরপর এএফসি প্রাথমিকভাবে ৩০ জুন থেকে ৬ জুলাই ম্যাচগুলো আয়োজনের দিনক্ষণ ঠিক করেছিল। কিন্তু বসুন্ধরার পক্ষ থেকে তখন আবেদন করা হয় ম্যাচগুলো আরেকটু পিছিয়ে দেয়ার। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি ক্লাবটির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আগস্টে সূচি চূড়ান্ত করে এএফসি। গ্রুপের খেলাগুলো হবে আগামী ১৮ থেকে ২৪শে আগস্ট। এর আগে ১৫ই আগস্ট প্লেুঅফ ম্যাচে ভারতের বেঙ্গালুরু এফসির বিপক্ষে খেলবে মালদ্বীপের ইগলস ক্লাব। গ্রুপে বসুন্ধরা আর মাজিয়ার সঙ্গে আছে ভারতের মোহনবাগানও। চতুর্থ দলটি হবে প্লেুঅফে বিজয়ী দল। ১৮ ও ২১শে আগস্ট যথাক্রমে বসুন্ধরার প্রতিপক্ষ মাজিয়া ও প্লেুঅফ বিজয়ী দল। শেষ দিনে ভারতের ঐতিহ্যবাহী মোহনবাগান ক্লাবের মুখোমুখি হবে বসুন্ধরা কিংস।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর