× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৫ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২১ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

কোরবানির পশুর হাট, দাম কমেছে, বেড়েছে ভিড়

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
২০ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

শুরুতে কেনাবেচা কম হলেও শেষ মুহূর্তে বিক্রি বেড়েছে পশুর হাটে। হাটের সময় ফুরিয়ে আসায় দামও ছাড়তে শুরু করেছেন ব্যাপারিরা। গতকাল ক্রেতারাও স্বস্তিতে কিনেছেন কোরবানির পশু। হাটে ভিড় বাড়ায় মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি। রাজধানীর গাবতলী হাটে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ইজারাদারকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
মাঝারি আকৃতির যেসব গরু গত রোববার ৮০ হাজার টাকায় বিক্রয় হয়েছে সেগুলো গতকাল বিক্রয় হয়েছে ৭০ থেকে ৭৫ হাজার টাকায়। কারণ হিসেবে ব্যাপারি জানালেন, হাটে পশু বিক্রয় কম। এ ছাড়াও অধিক দামের আশায় ঢাকার বাইরে বিভিন্ন গ্রাম-গঞ্জ থেকে ব্যাপারিরা অধিক লাভের আশায় পশু ঢাকায় এনেছেন।
দামের আশায় কেউ কেউ গত দুইদিন পশু বিক্রয় করেনি। ঈদ চলে আসার কারণে সবাই দ্রুত পশু বিক্রয়ের তোড়জোড় করাই দাম হঠাৎ পড়ে গেছে। এ ছাড়াও গত বছরের তুলনায় করোনায় এ বছর হাটে বিক্রয় কম হচ্ছে। অনেকেই পশু দেখে না কিনে বাড়ি ফিরে গেছে। এ কারণে দাম কমছে।
অনেকেই হাটে এসে পশু না কিনে অনলাইনে কেনার কারণে হাটে পশু বিক্রয় কম হচ্ছে। এতে হাটে পশুর দামও কমে গেছে। তবে যেসব পশু অধিক মোটাতাজাকরণ করা হয়েছে সেগুলোর চাহিদা এ বছর কম। ক্রেতারা শুধু দাম জিজ্ঞাসা করে চলে যাচ্ছেন। আজ পশু বিক্রয় হওয়ার সম্ভাবনা বেশি আছে বলে পশুর ব্যাপারিরা জানিয়েছেন। রাজধানীর বড় পশুর হাট গাবতলীতে গতকাল সরজমিন ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।  সরজমিন দেখা যায়, রাজধানীর বড় পশুর হাট গাবতলীতে কোনো স্বাস্থ্যবিধির বালাই ছিল না। অনেকেই মাস্ক ছাড়াই ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে। হাটে ছিল প্রচণ্ড পরিমাণের ভিড়।
পুলিশ কর্তৃক একস্থান দিয়ে প্রবেশ করে আরেকস্থানে দিয়ে বের হওয়ার নিয়ম করা হলেও তা কেউ মানেনি। অনেকেই একস্থান দিয়ে হাটে প্রবেশ করে ওই প্রবেশপথ দিয়েই আবার বের হয়েছেন। হাটের প্রবেশ পথগুলোতে হাত ধোয়ার কোনো ব্যবস্থা  দেখা যায়নি। এতে করোনা ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কায় আছেন হাট কর্তৃপক্ষ। স্বাস্থ্যবিধি মানাতে হাট কর্তৃপক্ষ কিছু স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দিলেও তাদের কথা কেউ মানছে না বলে জানা গেছে। এ নিয়ে হাটের কয়েকস্থানে বচসা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। হাটে স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ইজরাদারদের ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে।
গতকাল সরজমিন গাবতলীর হাটে গিয়ে দেখা যায়, হাটের ব্যাপারি ও স্বেচ্ছাসেবকরা তাদের পশু ট্রাক থেকে নামাতে ব্যস্ত। কোনো কোনো ব্যাপারি আবার ক্রেতাদের সঙ্গে পশুর দরদাম ঠিক করছেন।
নওগাঁর গরুর ব্যাপারি শফিক উদ্দিন জানান, কেউ পশুর দাম বেশি বলতে চাচ্ছেন না। যা বলা হচ্ছে তার চেয়ে অনেক বেশি কম বলছে। এ কারণে তিনি ৩টি গরু কম দামে বিক্রয় করেছেন। নোয়াখালীর সোনাইমুড়ির পশুর ব্যাপারি দেলহাজ হোসেন জানান, করোনার কারণে পশুর দাম হঠাৎ কমে গেছে। তবে ছাগলের দাম কমেনি।  
এদিকে, গাবতলী পশুর হাটে সার্বিক পরিস্থিতি দেখে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। গতকাল দুপুরে হাট পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের জানান, হাটের সার্বিক চিত্র তার কাছে মোটেও ভালো লাগেনি। হাটে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। মেয়রের এমন আক্ষেপের পরই স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনসহ ইজারার শর্ত ভঙ্গের অপরাধে ইজারাদারকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
ঢাকা সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা জানালেন, এ বছরই প্রথম ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৯টি হাটে ৯টি অ্যান্টিজেন টেস্ট বুথ বসানো হয়েছে। তাতে তিনজনের করোনা ধরা পড়েছে। মেয়র আতিকুল ইসলাম জানান, আমরা অব্যবস্থাপনার বিষয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি। আরও কঠোর ব্যবস্থা নেবো। রোজার ঈদের আগে আমরা স্বাস্থ্যবিধি না মানায় উত্তরার একটি শপিংমল বন্ধ করে দিয়েছিলাম। এখনো সেই ব্যবস্থা নিতে পারি। তিনি আরও জানান, হাটে তারা মাস্ক বিতরণ করছেন। আমরা হাটের বাইরের যেসব জায়গার বাঁশ ভেঙে দিয়েছি, সেখানেও গরু বাঁধা হয়েছে। তাতেও সমস্যা মনে করি না। সমস্যা হচ্ছে কেন স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। এ বছর কোরবানি পরবর্তী শহর পরিষ্কার করার জন্য আমাদের ১১ হাজার কর্মী কাজ করবেন। আমিও কিন্তু মাঠে থাকবো। আমাদের কাউন্সিলররা মাঠে থাকবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর