× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর ১৪৪৩ হিঃ

দশমিনায় নির্মাণের আগেই ভেঙে পড়েছে গাইডওয়াল

বাংলারজমিন

দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার

দশমিনা উপজেলার রণগোপালদী ইউনিয়নের আউলিয়াপুর লঞ্চঘাটে নির্মাণাধীন সড়কের গাইডওয়াল প্রায় ৩০ ফুট ভেঙে পড়েছে এবং পুরো ওয়াল যেকোনো সময় ভেঙে পড়ার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে কাজে অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয়রা। সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ২০২০-২১ অর্থবছরে স্থানীয় সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা আউলিয়াপুর লঞ্চঘাট থেকে লঞ্চ যাত্রীদের টারমিনাল জেটিতে ওঠার জন্য ১০০ ফুট সড়ক গাইডওয়ালসহ নির্মাণের জন্য কাবিটা প্রকল্পের মাধ্যমে ৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দেন। এ প্রকল্পের চেয়ারম্যান করা হয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আজীজ মিয়া ও সদস্য সচিব করা হয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন হাওলাদারকে। ওই প্রকল্পের কাজ চলমান অবস্থায় গত সোমবার বিকালে প্রায় ৩০ ফুট গাইডওয়াল ভেঙে পড়েছে এবং পুরো ওয়ালটা পশ্চিম দিকে হেলে পড়েছে। প্রকল্প থেকে ইতিমধ্যে তিন লাখ টাকা উত্তোলন করে নিয়েছেন প্রকল্প চেয়ারম্যান। আউলিয়াপুর লঞ্চঘাট এলাকার ব্যবসায়ী জসিম সরদার, কামরুল হাওলাদার, সাইফুল মিস্ত্রি, রাজিব হোসেন বলেন, কাজে অনিয়ম ছিল বলেই নির্মাণের আগেই ভেঙে পড়েছে গাইডওয়াল। তারা আরও জানান, মাটির নীচে কমপক্ষে ৩ ফুট ঢালাই করে গাইডওয়াল নির্মাণ করা উচিত ছিল যা করা হয়নি।
প্রকল্প চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল আজীজ মিয়া বলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা যেভাবে নির্দেশ দিয়েছেন সে রকম করেই নির্মাণকাজ করা হয়েছে, বালু ভরাট করার সময় বালুর চাপে গাইডওয়াল ভেঙে পড়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম বলেন, গাইডওয়ালের ইটের গাঁথুনি শক্ত হওয়ার আগেই বালু ভরাট করায় বালুর চাপে গাইডওয়াল ভেঙে পড়তে পারে। তিনি আরও বলেন, প্রকল্পের কাজ নির্দেশনা অনুযায়ী সম্পন্ন হলেই চূড়ান্ত বিল দেয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আল আমিন বলেন, তিনি সরজমিন গিয়ে বিষয়টি পরিদর্শন করেছেন এবং প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা বলেন, গাইডওয়াল ভেঙে পড়ার পরে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রকল্পটি পরিদর্শন করেছি। গাইডওয়ালের পাশে মাটি না থাকায় ওয়ালটা ভেঙে পড়েছে, প্রকল্প চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে পুনরায় নির্মাণকাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন করে দিতে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর