× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, রবিবার , ৩ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ সফর ১৪৪৩ হিঃ

দেশে ফিরলেও শেষবারের মতো বাবাকে দেখা হলো না বিপ্লবের

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলমান টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে থাকা আমিনুল ইসলাম বিপ্লব দূরদেশে থেকে জানলেন, তার বাবা আব্দুল কুদ্দুস আর নেই। বাবার মৃত্যুর খবরে দেশে ফিরলেও শেষ দেখা হচ্ছে না বিপ্লবের। তার দেশে ফেরার আগেই গতকাল বাদ জুমা বিপ্লবের বাবাকে সমাহিত করা হয়।
বিপ্লবের বাবা আব্দুল কুদ্দুস দীর্ঘদিন ধরেই হৃদরোগে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে ভর্তির চেষ্টা করলেও বিপ্লবের বাবা হতে চায়নি। পরে বাসায় নেয়ার পথে রাত ১০টার দিকে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর।
বাবার অনুপ্রেরণায় বিপ্লবের ক্রিকেটার হয়ে ওঠা। পেশায় সিএনজি অটোরিকশাচালক আব্দুল কুদ্দুস নিজে কষ্ট করলেও ছেলেকে বড় ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তুলতে সাধ্যের সবকিছুই করেছেন।
কষ্ট বৃথা যায়নি। স্বপ্নের এক একটা সিঁড়ি ভেঙে তার ছেলের সুযোগ মিলেছে জাতীয় দলের জার্সিতে। মাত্র ১৯ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথ চলা শুরু হয় বিপ্লবের। বিল্পবের বড় ভাই মুমিনুল ইসলাম বাবলু জানান, বিপ্লব খুব অস্থিরতায় ভুগছে। তবুও সে (বিপ্লব) বলেছে, ‘বাবাকে যেন কষ্ট দেয়া না হয়। দ্রুততম সময়ে যেন বাবার দাফন কার্যক্রম শুরু করা হয়। আমার কোনও কষ্ট নেই, আমার ২৪ ঘণ্টা লাগবে। শুধু শুধু বাবাকে ২৪ ঘণ্টা কষ্ট দিয়ে লাভ নেই।’ খিলগাঁওর সিপাহীবাগ বাজার জামে মসজিদের পাশের কবরস্থানে বাদ জুমা বিপ্লবের বাবার দাফন সম্পন্ন করা হয়।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) বিপ্লবের বাবার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে। পাশাপাশি দ্রুততার সঙ্গে তার দেশে ফেরার সব রকম ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর